অনলাইন কেনাকাটায় প্রতারণা থেকে বাঁচার ৫ উপায়

অনলাইন কেনাকাটায় প্রতারণা থেকে বাঁচার ৫ উপায়

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেক্সঃ

করোনার ঘরদন্দি সময়টা অনলাইন কেনাকাটায় অভ্যস্ত করেছে সবাইকে। কাঁচা বাজার থেকে শুরু করে শাড়ি-চুড়ি সম্বই কিনছেন অনলাইনে। ঘরের আসবাবপত্র কিছুই বাদ যাচ্ছে না। তবে সারাবছর অনলাইনে যত কেনাকাটাই করুন না কেন বছরের শেষের সেল মিস করতে চান না কেউই।

অনেক বড় বড় ই-কমার্স সাইট থেকে শুরু করে অনলাইন ছোট ছোট পেজ সবই ইয়ারএন্ডিং সেলের আয়োজন করে। পছন্দের জিনিস কম দামে কেনার জন্য অনেকেই এই সময় কেনাকাটা করে থাকেন। উৎসবের এই সময়ে সবচেয়ে বড় ঝুঁকি থাকে প্রতারণার। কারণ সাইবার অপরাধীরা ওত পেতে থাকে সবখানেই। প্রায়শই তাদের ফাঁদে পড়ে মোটা অঙ্কের অর্থ খোয়া যায় অনেক ক্রেতারা।

তাই এসময় অনলাইন কেনাকাটায় প্রতারণা থেকে বাঁচার কয়েকটি উপায় জেনে রাখুন। তাহলে খুব সহজেই বড় ঝামেলা থেকে রক্ষা পাবেন। চলুন জেনে নেওয়া যাক সেই উপায়গুলো-

অচেনা কোনো লিঙ্কে লগইন করবেন না
ই-কমার্স ওয়েবসাইট থেকে কেনাকাটার জন্য ক্রেতাদের অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে বলা হয়। যার মাধ্যমে তারা কেনাকাটা করতে পারবেন। অ্যাকাউন্ট তৈরি করার সময় ক্রেতাদের মেইল অ্যাড্রেস এবং ফোন নম্বর দিতে হয়। সেই ফোন নম্বর ও মেইল অ্যাড্রেসে বিভিন্ন অফারের আপডেট আসে পরবর্তীতে। তবে সাবধান যে কোনো লিঙ্ক আসলেই সেটিতে লগইন করবেন না। অনেকসময়েই প্রতারকরা এই অ্যাকাউন্টের যাবতীয় তথ্য চুরি করে নেয়। তারপর ক্রেতার অজান্তেই সেই অ্যাকাউন্টে ঢুকে অর্ডার করে, সেটাও ওই অ্যাকাউন্টের পেমেন্ট অপশন ব্যবহার করে।

নিরাপদ ব্রাউজার ব্যবহার করুন
অনেকসময়েই মেইলে বা হোয়াটসঅ্যাপে প্রতারকরা এমন একটি লিঙ্ক পাঠায় যা দেখতে একেবারেই আসল ওয়েবসাইটের মতো। ভালোভাবে সেই ওয়েবসাইট পরীক্ষা করে তারপর অর্ডার করুন। ওয়েবসাইটের লোগো এবং ইউআরএল দেখে বুঝে নিতে পারবেন সেতী আসল নাকি নকল।

ওটিপি অন্য কাউকে শেয়ার করবেন না
প্রতারণা থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য ব্যাংকসহ সব ধরনের আর্থিক লেনদেনে টু ফ্যাক্টর অথেন্টিফিকেশন পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়। তবুও এই পদ্ধতি ফাঁকি দিয়ে টাকা চুরি করছে প্রতারকরা। এজন্য কখনোই কাউকে আপনার ওটিপি শেয়ার করবেন না। কোনো ওয়েবসাইড থেকে বা পেজ থেকে ফোন করে ওটিপি চাইলে ভুলেও দেবেন না। সাধারণত কোনো ই-কমার্স ওয়েবসাইট বা ব্যাংক থেকে কখনো ফোন করে ওটিপি চাওয়া হয় না।

কার্ড বা কোনো তথ্য সেভ করবেন না
সহজে কেনাকাটা করার জন্য পরিচিত ওয়েবসাইটে অনেকসময় পেমেন্ট অপশন সেভ করে রাখেন। এতে পরে সময় কম লাগে। দ্রুত অর্ডার দেওয়া হয়। কিন্তু সুরক্ষার জন্য়ই কোনও কার্ড বা কোনো কিছুর তথ্য সেভ করবেন না। কখনো ফোন বা সাইটের তথ্য চুরি হলে ব্যাংক সংক্রান্ত তথ্যও চুরি হয়ে যেতে পারে।

ভেরিফায়েড নম্বর কি না পরীক্ষা করুন
ফোন নম্বর ঠিক কি না, তা বোঝার জন্য ট্রুকলারসহ একাধিক অ্য়াপ রয়েছে। সেগুলো ব্যবহার করুন। ভুল নম্বর বা প্রতারকদের নম্বর হলে তা অনেকসময় তালিকাভুক্ত করা হয়। তাহলে কোন নম্বর থেকে ফোন আসছে তা আগে থেকেই দেখে সতর্ক হতে পারবেন। বিদেশের কোনো নম্বর দেখলে পরিচিত না হলে সেই ফোন না ধরাই ভালো।

সূত্র: মিড-ডে

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :