আদমদীঘিতে সরকারি অফিসের ২৪৮ জাল সিলসহ প্রতারক আটক

আদমদীঘিতে সরকারি অফিসের ২৪৮ জাল সিলসহ প্রতারক আটক

রাজশাহী

স্টাফ রিপোর্টারঃ

বগুড়ার আদমদীঘিতে ভূমি অফিসসহ বিভিন্ন সরকারি দফতরের কর্মকর্তাদের স্বাক্ষর ও সিল জাল করে প্রতারণার অভিযোগে ইসাহাক আলী খন্দকার (৭৮) নামের আন্ত:জেলা জালিয়াত চক্রের এক সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ।

ইসাহাক উপজেলার শিয়ালশন গ্রামের আহম্মদ আলী খন্দকারের ছেলে। এ সময় তাকে সহযোগিতা করার অপরাধে সুদিন গ্রামের আব্দুস ছামাদের ছেলে আমিনুর রহমানকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে তিনদিনের কারাদণ্ড এবং ইসাহাকের বিরুদ্ধে ইউনিয়ন সহকারি ভূমি কর্মকর্তা রায়হানা জান্নাত শিখা বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা করেন।

জানা গেছে, উপজেলার সুদিন গ্রামের আমিনুর রহমান নামের এক ব্যক্তি জমির দাখিলা রশিদ উপজেলা ভূমি অফিসে দাখিল করেন। ওই দাখিলা যাচাই-বাছাই করার জন্য একজন ইউনিয়ন সহকারী ভূমি কর্মকর্তাকে তদন্তের নির্দেশ দেয়া হয়।

তদন্ত প্রতিবেদনে দাখিলাটির সিল স্বাক্ষরসহ যাবতীয় কাগজপত্রাদি নকল বলে প্রমাণিত হয়। এরপর অনুসন্ধান করে জানা যায়, উপজেলার শিয়ালশন গ্রামের ইসাহাক আলী খন্দকার নামের ওই ব্যক্তি দীর্ঘদিন যাবত বগুড়া, নওগাঁ জেলা প্রশাসক, সহকারী জজ, ইউএনও, সহকারী কমিশনার ভূমি, সাব- রেজিস্ট্রার, তহসিলদার, কানোনগো, ও সোনালী ব্যাংকসহ বিভিন্ন দফতরের সিল জাল করে প্রতারণার মাধ্যমে নকল দাখিলা, খতিয়ান, এম.আর.আর, সি.এস, জমির খাজনার রশিদসহ নানা ভুয়া কাগজপত্র তৈরি করে সাধারণ মানুষের কাছে টাকার বিনিময়ে বিক্রি করে আসছিল।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাহবুবা হকের নেতৃত্বে শিয়ালশন গ্রামে ইসাহাক আলীর বাসায় অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন দফতরের ২৪৮টি নকল সিল এবং বেশকিছু খাজনার রশিদসহ বিপুল পরিমাণ জাল কাগজপত্র জব্দ করেন।

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :