কার্বন নিঃসরণরোধে প্রযুক্তি উদ্ভাবনে ১০ কোটি ডলার পুরস্কার

কার্বন নিঃসরণরোধে প্রযুক্তি উদ্ভাবনে ১০ কোটি ডলার পুরস্কার

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেক্সঃ

জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় নড়েচড়ে বসেছে আন্তর্জাতিক মহল। রাজনৈতিক নেতাদের পাশাপাশি বিশ্ব অর্থনীতি শাসন করা ব্যবসায়ীরাও ভাবছেন কীভাবে কার্বন নিঃসরণ কমিয়ে বাঁচানো যায় পরিবেশকে। আর সেই লক্ষ্যে এবার এগিয়ে এলেন বিশ্বের শীর্ষ ধনকুবের এলন মাস্ক। কার্বন দূষণ নিয়ন্ত্রণের প্রযুক্তি বিকাশে ১০ কোটি মার্কিন ডলার পুরস্কার ঘোষণা করলেন তিনি।

বাড়ছে কার্বন নিঃসরণের পরিমাণ, সেইসাথে বাড়ছে পৃথিবীর তাপমাত্রা। জলবায়ু পরিবর্তনের এসব হিসেবনিকেষ এখন আর নতুন কিছু নয়। তবে আশার আলো জাগিয়েছে পরিবেশ রক্ষায় বিশ্বনেতাদের উদ্যোগী ভূমিকা। আর তাঁদের সঙ্গে এবার কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে প্রকৃতি বাঁচানোর কাজে নামছেন বিশ্বের বড় বড় সব ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মালিকরা।

সম্প্রতি এমনই একটি উদ্যোগ নিলেন বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি, টেসলা ও স্পেস-এক্সের স্বত্বাধিকারী এলন মাস্ক। কার্বন নিঃসরণ আটকে দিতে সবচেয়ে সেরা প্রযুক্তি উদ্ভাবনে ১০ কোটি মার্কিন ডলার পুরস্কার দেয়ার কথা জানান তিনি।

বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধিতে দায়ী উপাদান নিয়ন্ত্রণে এখন পর্যন্ত খুব কম প্রযুক্তিই উদ্ভাবিত হয়েছে। যা হয়েছে তার সবগুলোই কেবল দূষণকারী পদার্থের নিঃসরণ কমাতে সক্ষম। বাতাস থেকে এসব পদার্থ বিশেষ করে কার্বন সরিয়ে নেওয়ার প্রযুক্তি এখনও উন্নত হয়নি। আর প্রযুক্তির বিকাশে নিরলস কাজ করে যাওয়া এলন মাস্কের চোখ এড়ায়নি পরিবেশ রক্ষায় প্রযুক্তির এই সীমাবদ্ধতা।

পরিবেশ রক্ষায় প্রযুক্তির বিকাশে উদ্বুদ্ধ করতেই বৃহস্পতিবার নিজের টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে বিশাল অঙ্কের পুরস্কারের ঘোষণা দেন মাস্ক। এর পরপরই আরো একটি টুইটে জানান, এই বিষয়ে আগামী সপ্তাহে বিস্তারিত জানাবেন তিনি।

যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ক্ষমতায় আসার পরপরই পরিবেশ রক্ষায় প্রযুক্তিকে আরো কাজে লাগাতে উদ্যোগ নেয়ার কথা জানান। এরপর থেকেই কার্বন নিঃসরণে একযোগে কাজ করতে এগিয়ে আসছেন এলন মাস্কের মতো বড় উদ্যোক্তারা।

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :