গাণিতিক ধাঁধার ফাঁদে ফেলে মোবাইল ব্যাংকিং গ্রাহকদের অর্থ আত্মসাৎ

গাণিতিক ধাঁধার ফাঁদে ফেলে মোবাইল ব্যাংকিং গ্রাহকদের অর্থ আত্মসাৎ

জাতীয়

রাজশাহী টাইমস ডেক্সঃ

কৌশলে পাসওয়ার্ড বের করে গ্রাহকের অ্যাকাউন্টের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে অর্থ আত্মসাৎ করছে প্রতারক চক্র।

ক্যাশ ইন এবং ক্যাশ আউটসহ মোবাইল ব্যাংকিং করতে বিভিন্ন এমএফএস কোম্পানির এজেন্ট পয়েন্টে যেতে হয় গ্রাহকদের। লেনদেন করলে নিবন্ধন বইয়ে লিখতে হয় ফোন নম্বর। সেবাগ্রহীতা সেজে এজেন্ট পয়েন্ট থেকে গ্রাহকদের নম্বরের ছবি তোলে প্রতারকদের একটি দল। এরপর নম্বরগুলো পাঠিয়ে দেয় চক্রের অন্য দলের কাছে।

কর্মকর্তা সেজে ফোন করে, অ্যাকাউন্টের সমস্যা সমাধানের কথা বলে গ্রাহককে কাস্টমার কেয়ার নম্বরের সঙ্গে পাসওয়ার্ড গুণ করতে বলে প্রতারকরা। নির্দেশনা মেনে গুণফল জানিয়ে দেন অনেকে। তারপর কাস্টমার কেয়ার নম্বর দিয়ে গুণফলকে ভাগ করলেই বেরিয়ে আসে পাসওয়ার্ড। এভাবে অ্যাকউন্টের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে অর্থ আত্মসাৎ চলছেই।

মোবাইল ব্যাংকিং গ্রাহকদের টাকা আত্মসাৎ করাই পেশা হয়ে দাঁড়িয়েছে ফরিদপুরের ভাঙ্গা ও মধুখালী, রাজবাড়ির বালিয়াকান্দি এবং মাগুরার শ্রীপুরের অনেক গ্রামের বাসিন্দাদের। সম্প্রতি শ্রীপুর থেকে দুই প্রতারককে গ্রেপ্তারের পর গোয়েন্দা পুলিশ জানিয়েছে, ভুয়া নাম-ঠিকানা ব্যবহার করে মোবাইল সিমের নিবন্ধন নিয়েছিল তারা।

ডিএমপি গোয়েন্দা বিভাগের উপকমিশনার মুহাম্মদ শরীফুল ইসলাম জানান, এ চক্রটি দীর্ঘদিন ধরেই প্রতারণা চালিয়ে আসছে। কর্মকর্তারা বলছেন, প্রতারিত হওয়ার জন্য মোবাইল ব্যাংকিং গ্রাহকদের অসচেতনতাও দায়ী। প্রতারকরা তাদের আত্মীয়-স্বজনকেও কৌশল শিখিয়ে মোবাইল ব্যাংকিং প্রতারণাকে ছড়িয়ে দিচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :