চারঘাট ইউসুবপুরের মাদকের গটফাদার আজাদ গ্রেপ্তার

চারঘাট উপজেলার ইউসুবপুরের মাদকের গটফাদার আজাদ গ্রেপ্তার

রাজশাহী

চারঘাট প্রতিনিধিঃ

রাজশাহী চারঘাট উপজেলার ইউসুবপুর গ্রামের মাজেদের ছেলে মাদক সম্রাট ও সন্ত্রাসীদের গটফাদার আবুল কালাম আজাদ (৪৩) কে গ্রেপ্তার করেছে চারঘাট থানা পুলিশ। বুধবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ তথ্য নিশ্চিৎ করেছেন চারঘাট মডেল থানা পুলিশ সূত্র।

জানা গেছে, প্রশাসনের তালিকা ভুক্ত সন্ত্রাসী ও মাদকের গটফাদার চারঘাট উপজেলার ইউসুবপুরের শীর্ষ মাদক সম্রাট মাজেদ আলীর ছেলে আবুল কালাম আজাদ (৪৩)। তার বিরুদ্ধে একাধিক মাদক মামলা ও চোরাকারবারির হিসাবে সক্রিয় সদস্যদের অন্যতম তিনি অভিযোগ রয়েছে। এলাকায় আজাদের ক্যডারবাহীনি হিসাবে সহায়তা করেন তাকে ইউসুবপুর গ্রামের শরিফের ছেলে মাদক সম্রাট আরিফ, আয়নুলের ছেলে মান্না,  মুন্টুর ছেলে মাহিম, মতিনের ছেলে অনিকসহ তার ১০ থেকে ১৫ জনের একটি নিজস্ব ক্যডারবাহীনিরা। দীর্ঘদিন যাবত এ মাদক কারবারির সাথে সক্রিয় ভাবে জড়িত মাদক সম্রাট আবুল কালাম আজাদ।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, চারঘাট উপজেলার মধ্যে শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ীদের মধ্যে অন্যতম ইউসুবপুরের আবুল কালাম আজাদ। দীর্ঘদিন যাবত সে মাদক ও চোরাচালানকারী চক্রের গটফাদার হিসাবে পরিচিত। পুলিশ ও গোয়েন্দা পুলিশের তালিকা ভুক্ত মাদক সম্রাট আজাদ। এলাকায় মাদকের বিশাল সিন্ডিকেট গড়ে তুলেছেন তিনি। তার কাছে থেকে খুচরা মাদক নিয়ে বিক্রি করে ইউসুবপুর এলাকার প্রায় ২০ থেকে ৩০ জন মাদক ব্যবসায়ীরা। আর যারা তার কাছে থেকে মাদক না নিয়ে এলাকায় ব্যবসা করে তাদের নানা ভাবে হয়রানির শিকারে ফেলে দেন আজাদ ও তার বাহীনির সদস্যরা।

আরো জানা গেছে, প্রতিনিয়ত ভারত থেকে বড় বড় মাদক ফেনসিডিলের চালান তার নিয়ন্ত্রনে ইউসুবপুরে প্রবেশ করে। পরে এলাকার বিভিন্ন মাদক ব্যবসায়ীদের খুচরা বিক্রয়ের জন্য সাপলাই করে আজাদের নির্দেশে তার ক্যডারবাহীনিরা। তার বিরুদ্ধে কেউ প্রতিবাদ করলে হতে হয় হুমকি ও হামলার শিকার। ভয়ে তার বিরুদ্ধে কেউ কথা বলার সাহস পর্যন্ত পাই না। এছাড়া গরু চোরাকারবারি সিন্ডিকেট নিয়ন্ত্রন করে তিনি।

সাম্ম্রতিক আইনশৃঙ্খলা বাহীনির সদস্যরা আজাদের কিছু ফেনসিডিল ভারত থেকে পাচার হয়ে ইউসুবপুরে এসে ধরে ফেলে প্রশাসন। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে তার মাদকের চালান প্রশাসনকে দিয়ে আটক করতে সহায়তা করার মিথ্যা অপোবাদ দিয়ে মো পাঞ্জাতন নামের এক ব্যবসায়ীকে গত মঙ্গলবার তার বাড়ির সামনে এক ব্যবসায়ীকে দেশী অস্ত্র নিয়ে অতর্কিত হামলা চালায়। হামলার শিকার ও ব্যবসায়ীর হাত ও পা ভেঙ্গে যায়।

পরে গুরুতর আহত হয়ে রামেক হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে বুধবার চারঘাট থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। শুধু এ ঘটনা নয়। এর আগে তার মাদক ব্যবসার প্রতিবাদ করায় বহু স্থানিয় নিরিহ মানুষ তার ক্যডারবাহীনির হাতে হামলার শিকার হতে হয়। আজাদের বিরুদ্ধে হামলা, মাদক, স্বন্ত্রাসী কর্মকান্ডের বহু অভিযোগ রয়েছে। তার অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে এলাকাবাসী। বুধবার রাতে চারঘাট থানা পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করায় কিছুটা স্বস্তি এসেছে ইউসুবপুর এলাকাবাসীর মাঝে।

এ বিষয় রাজশাহী জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইফতেখার আলম বলেন, মাদক ব্যবসায়ী সে যতো বড় ক্ষমতাবান হোক তাকে ছাড় দেয়া হবে না। ইউসুবপুরের মাদক সম্রাট হিসাবে পরিচিত আজাদ। সে পুলিশের তালিকা ভুক্ত মাদকের গটফাদার। তার বিরুদ্ধে চারঘাট থানার সুযোগ্য অফিসার ইনচার্জ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে জানান তিনি।

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :