চারঘাট পৌর নির্বাচন: তৎপর আ.লীগ প্রার্থী একরামুল, মাঠে নেই বিএনপি প্রার্থী বিকুল

চারঘাট পৌর নির্বাচন: তৎপর আ.লীগ প্রার্থী একরামুল, মাঠে নেই বিএনপি প্রার্থী বিকুল

রাজশাহী

চারঘাট প্রতিনিধি:

আর মাত্র ৪ দিন পরেই রাজশাহীর চারঘাট পৌরসভা নির্বাচনের ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। তবে প্রচার-প্রচারনার শেষ মুহুর্তেও মাঠে দেখা নেই বিএনপির মেয়র প্রার্থী জাকিরুল ইসলাম বিকুলের।

অপরদিকে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী একরামুলকে জেতাতে একাট্টা হয়ে মাঠে রয়েছেন তৃণমুল আওয়ামী লীগ। প্রতিদিনই বিভিন্ন ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে চলছে সভা-সমাবেশ। নৌকার গণজোয়ার সৃষ্টি করতে সিনিয়র নেতৃবৃন্দের নেতৃত্বে বিভিন্ন গ্রুপে ভাগ হয়ে চলছে প্রচার-প্রচারণা।

পাড়া মহল্লায় গিয়ে ভোটারদের কাছে আওয়ামী লীগ সরকারের ক্ষমতা কালের উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে নৌকার পক্ষে ভোট প্রার্থনা করছেন তারা। আওয়ামী লীগ নেতাদের কাছে পেয়ে ভোটাররাও তাদের দুঃখ, দুদর্শার কথা প্রকাশ করছেন।

আওয়ামী লীগ নেতারাও ভোটারদের দুঃখ, দুর্দশার কথা গুলো শুনে তা সমাধানের আশ্বাস দিচ্ছেন। আওয়ামী লীগ নেতাদের এমন কৌশলী প্রচার-প্রচারাণায় পুরো পৌর এলাকার চায়ের স্টলে ঝড় উঠেছে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী একরামুল হকের বিজয়ের কথা।

সরজমিনে পৌর এলাকার বিভিন্ন পাড়া মহল্লা ঘুরে ভোটারদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, তফসিল ঘোষণার পর থেকে আওয়ামীলীগের দলীয় প্রার্থী একরামুল হক ছাড়াও ভোটের মাঠে প্রচারনায় নেমেছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক উপজেলা চেয়ারম্যান ফকরুল ইসলাম, জেলা আ’লীগের অন্যতম সদস্য সাইফুল ইসলাম বাদশাসহ তৃণমুল আওয়ামী লীগ। সব ধরনের ভেদাভেদ ভুলে অনেকটা একাট্টা হয়ে দলীয় প্রার্থীর পক্ষে দিন রাত সমান তালে চালিয়ে যাচ্ছেন প্রচারণা।

বর্তমান সরকারের উন্নয়নের ফিরিস্তি তুলে ধরে প্রতিটি বাড়ি বাড়ি গিয়ে নৌকার পক্ষে ভোট প্রার্থনা করছেন তারা। তাদের প্রচারণায় মুখোড়িত হয়ে উঠেছে পুরো পৌর এলাকা। চায়ের দোকান থেকে শুরু করে মোড়ে মোড়ে চলছে নৌকার জয়গান। ভোর হলেই চায়ের কাপে রিতিমত নৌকার ঝড় উঠেছে চারঘাটে। সেইদিক থেকে নির্বাচনী মাঠে দেখা নেই বিএনপি প্রার্থী বিকুলের।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পৌর এলাকার বিভিন্ন ওয়ার্ডের বাসিন্দাদের দাবি, নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা হলেও বিএনপির মেয়র প্রার্থী বিকুলের প্রচারণা তেমন ভাবে জমে উঠেনি। বিএনপির নেতাকর্মীরাও তেমন মাঠে নামছে না।

দীর্ঘদিন ধরে পৌরসভার মেয়র থাকাকালীন সময়ে পৌরবাসীর কাংখিত সেবা দিতে ব্যার্থ হওয়ায় পৌরবাসী বিকুলের উপর অনেকটা ক্ষুব্ধ রয়েছেন বলে দাবি তাদের।

অন্যদিকে তফসিল ঘোষণার আগে থেকে বিভিন্ন পাড়া মহল্লায় দিন রাত সমান তালে চষে বেড়াচ্ছেন আওয়ামী লীগ দলীয় মেয়র প্রার্থী একরামুল হক। তার সঙ্গে একত্মতা জানিয়ে মাঠে ময়দানে ভোট প্রার্থনায় নেমেছেন মনোনয়ন বঞ্চিত মেয়র প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কাজী মাহমুদুল হাসান মামুন ও ছাত্রলীগের সভাপতি আল মামুন তুষার। আল-মামুন তুষার গুরুতর আহত অবস্থাতেও দৌড়াচ্ছেন কাকডাকা ভোর থেকে মধ্য রাত পর্যন্ত।

আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনার জন্য প্রধান সমন্বয়ক হিসেবে দায়িত্ব পাওয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক উপজেলা চেয়ারম্যান ফকরুল ইসলাম বলেন, একরামুল হক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রার্থী। একরামুল হক দীর্ঘদিনের পুরনো এবং পরীক্ষিত নেতা। এখন তাকে জিতিয়ে আনাই হবে আমাদের প্রধান কাজ। তাই সব ভেদাভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধ ভাবে সকল নেতাকর্মী নৌকার পক্ষে মাঠে নেমেছেন।

নৌকার গণজোয়ার সৃষ্টি করতে প্রতিটি পাড়া মহল্লায় চালিয়ে যাচ্ছে প্রচারণা। অন্যদিকে বিএনপি প্রার্থী প্রচার প্রচারণায় অংশগ্রহণ না করে রাতের অন্ধকারে নৌকার পোষ্টার কেটে ফেলছে। নানা রকম সন্ত্রাসী কার্যক্রম করে ভোটের মাঠের শৃঙ্খলা নষ্ট করছে।

অপরদিকে বিএনপির প্রার্থী বিকুলের দাবি আমি মাঠে আছি। নানা রকম প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে আমাকে প্রচারণা চালতে দেওয়া হচ্ছে না। তারপরও প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছি। বিএনপির নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ রয়েছে।

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :