জান্নাতে কি মানুষের সব চাহিদা পূরণ করা হবে?

জান্নাতে কি মানুষের সব চাহিদা পূরণ করা হবে?

রাজশাহী

ইসলামীক ডেক্সঃ

জান্নাতিরা কি যা চাইবে, তা-ই পাবে? আল্লাহ তাআলা কি জান্নাতি মানুষদের মনে সব ইচ্ছা-আকাঙ্ক্ষা পূর্ণ করবেন? এ সম্পর্কে ইসলামের দিকনির্দেশনাই বা কী?

জান্নাত মানুষের চূড়ান্ত ও স্থায়ী ঠিকানা। যারা নিজেদের কর্মের মাধ্যমে জান্নাতের উপযুক্ত করে গড়ে তুলতে পারবেন; জান্নাতে তারা তাদের চাহিদা মোতাবেক সব সুবিধাই পাবেন। আল্লাহ তাআলা পরকালে জান্নাতে মানুষের কোনো ইচ্ছাই অপূর্ণ রাখবেন না। বরং মহান আল্লাহ সেখানে মানুষের সব চাওয়া-পাওয়া ও প্রত্যাশা পূরণ করবেন। আল্লাহ তাআলা ঘোষণা করেন-
وَفِيهَا مَا تَشْتَهِيهِ الْأَنفُسُ وَتَلَذُّ الْأَعْيُنُ ۖ وَأَنتُمْ فِيهَا خَالِدُونَ‏ وَتِلْكَ الْجَنَّةُ الَّتِي أُورِثْتُمُوهَا بِمَا كُنتُمْ تَعْمَلُونَ
‌আর সেখানে (জান্নাতে) রয়েছে তোমাদের কাঙ্ক্ষিত এবং চোখ জুড়ানো সব কিছু। তোমরা তথায় চিরকাল অবস্থান করবে। এই যে, জান্নাতের উত্তরাধিকারী তোমরা হয়েছ, এটা তোমাদের কর্মের ফল।’ (সুরা যুখরুফ : আয়াত ৭১-৭২)

জান্নাতে চাহিদা পূরণের শর্ত
জান্নাতে যাওয়া এবং জান্নাতের সব নেয়ামত ভোগ করার ইচ্ছা পূর্ণ করার জন্য সবাইকে কিছু শর্ত মেনে চলতে হবে। তাহলো ঈমানের পাশাপাশি আল্লাহর ও তাঁর রাসুলের বিধান অনুযায়ী জীবন পরিচালনা করা।

নারীদের জান্নাতে যাওয়া সহজ
রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বিশেষভাবে নারীদের জন্য জান্নাতে যাওয়াকে সহজ হবে বলেছেন। মৌলিক ৪টি কাজ করলেই নারীরা সহজে জান্নাতে যেতে পারবেন। হাদিসে এসেছে-
হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন-
إِذَا صَلَّتِ المَرْأةُ خَمْسَها وَصَامَتْ شَهْرَها وَحَصَّنَتْ فَرْجَها وأطاعَتْ زَوْجَهَا قِيلَ لَها أدْخُلِي الجَنَّة مِنْ أيِّ أبْوابِ الجَنَّةِ شِئْتِ
১. নারীরা যখন পাঁচ ওয়াক্তের নামাজ আদায় করে;
২. রমজান মাসের রোজা রাখে;
৩. (অবৈধ যৌনাচার থেকে) তার যৌনাঙ্গকে সংযত রাখে; এবং
৪. স্বামীর কথা ও নির্দেশ মেনে চলে।
তখন তাকে বলা হবে, জান্নাতের যে দরজা দিয়ে ইচ্ছা তুমি জান্নাতে প্রবেশ কর।’

এরপর মানুষের ওপর যেসব কাজ (হজ, জাকাত) আদায় করা ফরজ, তা যথাযথভাবে পালন করে তাদের জন্য জান্নাতে চাহিদা মতো নেয়ামত ও সুবিধা অবধারিত।

সুতরাং মানুষের উচিত, কুরআন-সুন্নাহর বিধান মোতাবেক নিজেদের জীবন পরিচালনা করার মাধ্যমে নিজেদেরকে জান্নাতের জন্য তৈরি করা। জান্নাতের নেয়ামত লাভে নিজেদের ধন্য করার চেষ্টা করা।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহর সবাইকে হালাল কাজগুলা যথাযথভাবে করার এবং হারাম কাজ থেকে বেঁচে থাকার তাওফিক দান করুন। জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে ইসলামের বিধিবিধান মেনে চলে জান্নাতে নিজেদের চাহিদা মোতাবেক নেয়ামত পাওয়ার তাওফিক দান করুন। আমিন।

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :