টাকা চুরির অপবাদে শিক্ষার্থীকে গাছে বেঁধে নির্যাতন,অভিযুক্ত আটক

টাকা চুরির অপবাদে শিক্ষার্থীকে গাছে বেঁধে নির্যাতন,অভিযুক্ত আটক

রাজশাহী

স্টাফ রিপোর্টারঃ

জয়পুরহাটের ক্ষেতলালে মাত্র ২ শ টাকা চুরির অপবাদ দিয়ে তৃতীয় শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীকে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে। ক্ষেতলাল উপজেলার ধনতলা বাজার এলাকায় শনিবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে।

নির্যাতনের শিকার মেয়েটি স্থানীয় একটি সরকারি প্রাথমিক বিদালয়ের ছাত্রী।নির্যাতনের ওই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে রাতেই মামলার পর অভিযুক্ত বেলী বেগমকে আটক করে আজ রবিবার বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করেন থানা পুলিশ। আটককৃত বেলী বেগম ধনতলা বাজার এলাকার আবু বক্কর সিদ্দিকের স্ত্রী।

ক্ষেতলাল থানার অফিসার ইনচার্জ নীরেন্দ্রনাথ মন্ডল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। স্থানীদের বরাত দিয়ে তিনি নীরেন্দ্রনাথ মন্ডল জানান, ধনতলা বাজারের চা বিক্রেতা বেলী বেগম চা বিক্রি করছিলেন।

এমন সময় ক্যাশ বাক্সে ২ শ টাকা না থাকার অভিযোগ এনে ওই শিশুকে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন করেন।ওসি আরও জানান, গাছে বাঁধা ওই শিশু টাকা চুরির কথা অস্বীকার করে কাঁদতে থাকে। স্থানীয় একজন ঘটনাটি ভিডিও করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আপলোড করলে তা ভাইরাল হয়ে যায়।ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর দাদা বাদী হয়ে মামলা করলে অভিযুক্ত বেলী বেগমকে রাতেই আটক করা হয়।

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :