দুধের সঙ্গে যে খাবারগুলো খাওয়া বিপজ্জনক

দুধের সঙ্গে যে খাবারগুলো খাওয়া বিপজ্জনক

জীবনযাপন

রাজশাহী টাইমস ডেক্সঃ

দুধ আদর্শ খাবার হলেও সবার পেটে সহ্য হয় না। তবুও দুধ ও দুধের তৈরি বিভিন্ন খাবার সবারই কমবেশি খাওয়া হয়। তবে জানেন কি? এমন অনেক খাবার রয়েছে যেগুলো দুধের পর খেলেই হতে পারে কঠিন রোগ।

শরীরকে পুষ্টি দিতে খাওয়া হয় দুধ। তবে এর পরই যদি ভুল খাবার খাওয়া হয়; তাহলে পুষ্টির বদলে শরীরে সৃষ্টি হবে কঠিন রোগ। এ ছাড়াও দুধ খাওয়ার পর কোনো ভুল খাবার খেলে ক্লান্তিবোধ, বমি, ডায়রিয়া ও গ্যাস্ট্রিকের সমস্যায় ভুগতে হয়।

>> ডিম ও দুধ কখনো একসঙ্গে খাওয়া উচিত নয়। উচ্চ প্রোটিনসমৃদ্ধ পানীয়ের মধ্যে একটি হলো দুধ। ভুল করেও ডিম ও দুধ একসঙ্গে খাবেন না। দুধের সঙ্গে যে কোনো তেলে ভাজা খাবার খেলে মারাত্মক প্রভাব পড়ে শরীরে। এ কারণেই ডিম আর দুধও একসঙ্গে খাওয়া উচিত নয়।

>> সকালের নাস্তায় পাউরুটি, ডিম, কলা ও দুধ অনেকেই খেয়ে থাকেন। কোষ্ঠকাঠিন্য থেকে শুরু করে পেটের যাবতীয় সমস্যা বাড়ে কলা ও দুধ খেলে। এমনকি হজমেরও সমস্যা হয়। দুধের সঙ্গে কলা কখনোই খাবেন না।

>> দুধ ও টকদইয়ের মেলবন্ধনেও ক্ষতি হয় শরীরের। কারণ এই দুটি খাবার একসঙ্গে খেলে হজম হয় না। টকদইয়ের সঙ্গে কখনো গরম খাবার খাওয়া উচিত নয়।

>> ভুল করেও দুধের সঙ্গে কখনো লেবু খাবেন না। দুধ খাওয়ার এক ঘণ্টার মধ্যে কখনো টকজাতীয় খাবার খাবেন না। এতে এসিড হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। এর থেকে পেটের সমস্যা বাড়ে।

>> মাছের কোনো পদ খাওয়ার পর দুধ খাবেন না। কারণ দুধ শরীর ঠান্ডা রাখে। মাছ ও দুধ একসঙ্গে খেলে শরীরে অ্যালার্জি হওয়ার ঝুঁকি বাড়ে।

>> দুধের সঙ্গে লবণ ব্যবহার করলে এর প্রোটিনগুলো কমে যায়।

>> পেঁয়াজের সঙ্গে দুধ একেবারেই খাবেন না। এতে চুলকানি ও সংক্রমণের সমস্যা বাড়তে থাকে।

>> মসলা ও ঝালজাতীয় খাবার একসঙ্গে খেলে সহজে হজম হয় না। এতে পেট ব্যথা ও গ্যাস্ট্রিক এমনকি বমিও হতে পারে।

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :