ধর্মীয় অনুভূতিতে ‘আঘাত হেনে’ ফেইসবুকে স্ট্যাটাস, যুবক আটক

ধর্মীয় অনুভূতিতে ‘আঘাত হেনে’ ফেইসবুকে স্ট্যাটাস, যুবক আটক

জাতীয়

রাজশাহী টাইমস ডেক্সঃ

ধর্মীয় অনুভূতিতে ‘আঘাত হেনে’ ফেইসবুকে স্ট্যাটাস দেয়ার অভিযোগে চুয়াডাঙ্গার গিরিশনগরের যুবক মানিক খাঁনকে আটক করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সদর উপজেলার গিরিশনগর বাজার থেকে তাকে আটক করে দর্শনা থানা পুলিশ। তিনি তার ব্যক্তিগত ফেইসবুক ওয়ালে মসজিদ নিয়ে নেতিবাচক মত প্রকাশ করেছিল।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সদর উপজেলার তিতুদহ ইউনিয়নের গিরিশনগর গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে মানিক খাঁন (২৬) তার ব্যক্তিগত ফেইসবুক আইডি ‘গধহরশ শযধহ’ থেকে মসজিদ নিয়ে একটি স্ট্যাটাস পোস্ট করেন। মূহুর্তের মধ্যে ওই স্ট্যাটাসের স্ক্রিনশট বিভিন্ন গ্রুপ ও আইডিতে ছড়িয়ে পড়ে। এতে এলাকার ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। অনেকেই তার বিরুদ্ধে মারমুখী হতে থাকেন। তাকে প্রতিরোধ করার জন্য একত্র হতে শুরু করে ইসলামপন্থীরা। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে, এমন আশঙ্কায় সন্ধ্যায় গিরিশনগর এলাকায় অভিযান চালিয়ে যুবককে আটক করে পুলিশ।

অনেকে জানিয়েছে, যুবক মানিক খান নিজেকে বিভিন্ন অনলাইন পোর্টালের সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে আসতো। সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে তিনি বিভিন্ন সময় সমাজের উচ্চপদস্থ মানুষের সাথে ছবি উঠে তা ফেইসবুকে শেয়ার করতো।

মানিক খাঁন তার ফেইসবুক পাতায় যা লিখেছিল তা হুবুহু তুলে ধরা হলো ‘‘যেখানে সেখানে মসজিদ না তৈরী করে কিছু খেলাধুলা করার মাঠ বানালে শিশু কিশোরদের সুস্থ মানসিক বিকাশ ঘটত। এত মসজিদ দিয়েও সমাজের মনবিক বিপর্যয় রোধ করা যাচ্ছে না। কারণ, মসজিদ সহ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান সমূহ, খেলার মাঠ এবং সাস্কৃতিক ক্লাব- এই সবকিছুরই প্রয়োজন আছে এই সমাজে। কিন্তু শুধু মসজিদ বানানোর কারনে সমাজ টা এত বিষাক্ত।”
 
দর্শনা থানার ভারপ্রাপ্ত (ওসি) মাহাব্বুর রহমান কাজল জানান, মানিক খাঁন নামের এক যুবক ফেসবুকে মসজিদ নিয়ে বিরুপ মন্তব্য করায় যে কোন ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে তাকে তাৎক্ষনিক পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে। বুধবার তাকে আদালতে সোপর্দ করা হবে।

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :