নওগাঁয় নববধূর মৃতদেহ উদ্ধার ঘটনায় ৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ

নওগাঁয় নববধূর মৃতদেহ উদ্ধার ঘটনায় ৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ

রাজশাহী

স্টাফ রির্পোটারঃ

নওগাঁর মান্দা উপজেলার কালিকাপুর (জংলীপাড়া) গ্রাম থেকে এক নববধূর মৃতদেহ উদ্ধার এর ঘটনায় ওই নববধূর স্বামীর পরিবারের ৪ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে মান্দা থানা পুলিশ।নিহতের স্বজন ও স্থানিয় সুত্র জানান, নববধূর স্বামী মাসুদ রানা (৩০) আগের স্ত্রীদের ওপর ও যৌতুক সহ বিভিন্ন দাবিতে নির্যাতন করায় তারা স্বামীকে ছেড়ে পিতার বাড়ি চলেগেছে।

পরে পার্শ্ববর্তী জেলা চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল থানায় আবারও বিয়ে করেন মাসুদ রানা।বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের দাবিতে নববধূ জহুরা বেগম (২৮) এর ওপর নির্যাতন শুরু হয়। শ্বশুর আব্বাস আলী, শাশুড়ি শাহিদা বেগম ও ননদ রিনা খাতুনের প্ররোচনায় এসব নির্যাতন করে আসছিল স্বামী মাসুদ বলে নিহতের স্বজনরা জানান।নিহতের ভাই আব্দুল খালেক প্রতিবেদককে জানান, আমাদের বোনকে তারা (স্বামীর পরিবার) নির্যাতন করে হত্যা করেছে।

এজন্য বাদী হয়ে তাদের বিরুদ্ধে মান্দা থানায় মামলা দায়ের করেছি।৪ জনকে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে মান্দা থানার ওসি মোঃ শাহিনুর রহমান জানান, ঘটনা জানার সাথে সাথেই ঘটনাস্থলে পৌছে প্রাথমিক সুরতহাল অন্তে মৃতদেহ উদ্ধার পূর্বক নওগাঁ সদর হাসপাতাল মর্গে নিয়ে ময়না তদন্ত সম্পর্ন করা হয়েছে।এঘটনায় নিহতের বাবা বাদী হয়ে ৪ জনের বিরুদ্ধে থানায় এক‌টি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার পেক্ষিতে ৪ জনকে আটক পূর্বক শুক্রবার বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে নওগাঁ জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে বলেও নিশ্চিত করেছেন ওসি।

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :