নওগাঁয় প্রেমিকের সাথে দেখা করতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার প্রেমিকা..!

নওগাঁয় প্রেমিকের সাথে দেখা করতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার প্রেমিকা..!

রাজশাহী

নিজেস্ব প্রতিবেদকঃ

নওগাঁয় প্রেমিকের সাথে দেখা করতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক প্রেমিকা। সম্পতি এ-গণধর্ষণের ঘটনাটি ঘটেছে নওগাঁর বদলগাছী উপজেলায়। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ধর্ষিতা (১৮) নিজেই বাদী হয়ে থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন।

অভিযুক্তরা হলেন, বদলগাছী উপজেলার রামপুর গ্রামের মৃত মনির হোসেনের ছেলে মমিনুর হোসেন ওরফে লাদেন(১৯) ও একই গ্রামের ফরহাদ হোসেনের ছেলে মমিন হোসেন(১৯) এবং অজ্ঞাতনামা আরো একজন।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, বদলগাছী থানার পারআধাইপুর গ্রামের এক ছেলের সাথে পার্শবর্তী পত্নীতলা থানাধীন দক্ষিণ আড়াইল গ্রামের এক যুবতী মেয়ের দীর্ঘ প্রায় ৫ বছর যাবৎ প্রেমের সম্পর্ক চলছিলো।

সম্পর্কের সুত্রধরে গত বৃহস্পতিবার (১৮ মার্চ) প্রেমিকের সাথে দেখা করার জন্য প্রেমিকের খালাতো ভাইয়ের বাসায় এসে ওঠেন ঐ প্রেমিকা মেয়েটি এবং রাত আনুমানিক ১২ টার দিকে প্রেমিকের সাথে সাক্ষাৎ শেষে মেয়েটি ঐ বাড়ি থেকে বের হয়।

পথিমধ্যে ওৎ পেতে থাকা অভিযুক্তরা প্রেমিকা মেয়েটিকে জোরপূর্বক পার্শবর্তী মাঠের ক্ষেতে নিয়েগিয়ে মুখ বেধে এবং হাত-পা ধরে রেখে অভিযুক্তরা পালাক্রমে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন।এ ঘটনায় মেয়েটি নিজে বাদী হয়ে (১৯ মার্চ) বদলগাছী থানায় দুই জনের নাম উল্লেখ সহ  অজ্ঞাতনামা একজন মোট ৩ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন।

আসলে শুধু ঐ ৩ জনই কি পর্কৃত ধর্ষণকারী নাকি মেয়েটির প্রেমিক ও গণধর্ষণে জড়ীত এমন নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে এলাকার সচেতন মহলে ও পাশাপাশি ঘটনাটি সুষ্ঠ তদন্তের জন্য নওগাঁর সুযোগ্য জেলা পুলিশ সুপার মহোদয় এর আশু দৃষ্টি কামনা করেছেন সচেতন মহল।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বদলগাছী থানার ওসি ( তদন্ত) আজ শনিবার প্রতিবেদককে মুঠোফোনে জানান, মেয়েটি নিজে বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছেন। এবং ইতি মধ্যেই ২ জন আসামীকে আটক করে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে নওগাঁ জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে এবং অজ্ঞাতনামা আসামীকেও আটকের চেষ্টা চলছে।

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :