নাটোর মিরপাড়া খ্রিস্টানের বাগানে মাদক ব্যাবসায়ীদের হামলায় আহত-০৩ 

নাটোর মিরপাড়া খ্রিস্টানের বাগানে মাদক ব্যাবসায়ীদের হামলায় আহত-০৩ 

রাজশাহী

লিয়াকত হোসেন রাজশাহীঃ 

নাটোর জেলার সদর থানাধীন পৌরসভার ০৬ ওয়ার্ডের মিরপাড়া খ্রিস্টানের বাগানে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে 

 মাদক ব্যাবসায়ীদের হামলায় গুরুতর আহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। আহতরা হলেন নাটোর সদর থানাধীন সামসুল কাজির ছেলে জামাল কাজি তার স্ত্রী লাকি বেগম ও তার ছেলে রাকিব হোসেন। 

গুরুতর আহত ০৩ জন বর্তমানে রামেক হাসপাতালের ০৮ নং ওয়ার্ডের ফ্লোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন। 

ঘটনা সুত্রে সুত্রে জানা যায়, সদর থানাধীন খ্রিস্টানের বাগানের জমিতে প্রায় ৫০ থেকে ৬০ টি পরিবার দীর্ঘদিন ধরে অস্থায়ী ভাবে বসবাস করে আসছেন। সেই সুবাদেই জামাল কাজি ও তার স্ত্রী লাকি বেগম তাদের ছেলেদের নিয়ে বসবাস করছেন। 

গত ০২ সেপ্টেম্বর শুক্রবার সন্ধ্যা সারে ৬ টার সময় পাশের লোকের বাউন্ডারি ওয়াল নির্মাণকে কেন্দ্র করে একইসাথে জায়গায় বসবাসরত জামালের ছেলে রাজিবের সাথে খ্রিস্টানের বাগানে বসবাস কারী ফরিদপুর জেলা থেকে আগত মনিরুজ্জামান ও তার ছেলে তানভীরের সাথে বাউন্ডারি দেওয়াল নির্মাণ কে নির্মাণকে কেন্দ্র করে বাকবিতণ্ডা হয়।

বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে আগে থেকে ওত পেতে থাকা 

 মনিরুজ্জামানের ছেলে তানভীর, মাদকের মুল হোতা মনিরুজ্জামাবের খালা মিলন ও তার ছেলে আদম,মেয়ে সুবর্ণাসহ বহিরাগতদের নিয়ে রড দেশিয় অস্ত্র হাসুয়া, রামদা, জি আই পাইপ দিয়ে অতর্কিত হামলা চালিয়ে একই পরিবারের ৩ জনকে গুরুতর আহত করার ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাস্থলে রাকিবকের মা লাকী বেগম ছেলেকে বাঁচাতে এগিয়ে আসলে নুরুজ্জামান ও তার ছেলে তারভীর ধারালো অস্ত্রের দিয়ে মারাত্মক জখম করে। রাকিবের বাবা জামাল কাজি এগিয়ে আসলে তাকেও হাসুয়া দিয়ে আঘাত করে ডান চোখে আঘাত প্রাপ্ত হয়ে নিচে পরে গেলে বুকে পা দিয়ে চেপে ধরলে ঘটনাস্থলে তিনি জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। 

আহতদের চিৎকারে জামাল কাজির বড় সাজ্জাদ কাজী এগিয়ে এলে তাকে বেদম মারধর করে আহত করেন বলে এই ভুক্তভোগী পরিবার। 

 হামলার বিষয়ে জামাল কাজি প্রতিবেদককে বলেন, মনিরুজ্জামান আর আমরা প্রতিবেশী আমার বাড়ি সংলগ্ন জমিতে রাস্তা ছেরে দেওয়ার পরেও নাটোর পৌরসভার মেয়র বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন মনিরুজ্জামান ও তার পরিবারের সদস্যরা। এ অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত করে কোনো সত্যতা পায়নি।

আহত জামাল আরও বলেন, মনিরুজ্জামানের মিলন খালা দীর্ঘদিন ধরে ইন্ডিয়ান শারী কাপুর ব্লাকির মাধ্যমে ছদ্মবেশে বিভিন্ন স্থানে মাদক সরবরাহের কাজ করে আসছে এলাকায় তিনি ইয়াবা ও ফেন্সিডিল মিলন খালা নামে বেশ পরিচিত। 

জামানের ছেলে রাকিব হোসেন বলেন,ইদানিং খ্রিস্টানের বাগানে মাদকাসক্ত তরুণদের আনাগুনা বেশী হওয়ায় বসবাসকারীরা মৌখিকভাবে নিষেধ করায়, পূর্বেও একবার বাক-বিতণ্ডার মত ঘটনা ঘটেছে নুরুজ্জামানের মিলন খালা ও তার দুই ছেলে মেয়ের সাথে।  

এরি জের ধরে আগে থেকে ওত পেতে পরিকল্পিত ভাবে অস্ত্রসহ এ হামলা চালিয়ে জখম করে আহতদের প্রথমে নাটোর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয় পরে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা গুরুতর জখম দেখে রাজশাহী মেডিকেলে নিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেয়। 

অভিযুক্ত মনিরুজ্জামানের সাথে কথা বলতে মুঠো ফোনে কল দিলে ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায় তাই তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি। 

এবিষয়ে নাটোর সদর থানার ওসি মোঃ নাসিম হোসেন বলেন ঘটনাটি শুনেছি এ ঘটনায় সদর থানায় কোন অভিযোগ হয়নি, অভিযোগ দিলে ততদন্ত করে দোষী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে অবশ্যয় তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :