বাগমারায় পঞ্চম শ্রেনীর এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষন ধর্ষ ক গ্রেপ্তার

বাগমারায় পঞ্চম শ্রেনীর এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষন: ধর্ষক গ্রেপ্তার

রাজশাহী

বাগমারা প্রতিনিধিঃ

রাজশাহীর বাগমারায় পঞ্চম শ্রেনীর এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগ উঠেছে। ওই ঘটনায় ছাত্রীটির বাবা শুক্রবার রাতে বাদী হয়ে ফজলুর রহমান ফজেল (৫০) নামের এক লম্পটকে আসামী করে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। রাতেই অভিযান চালিয়ে পুলিশ ধর্ষক ফজেলকে আটক করেছে। পুলিশ ধর্ষিত ছাত্রীকে উদ্ধার রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টার (ওসিসি)রে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করেছে।

ঘটনাটি ঘঠেছে উপজেলার বড়বিহানালী ইউনিয়নের ছোটকয়া গ্রামে। থানার মামলা সূত্রে জানা যায়, স্কুল ছাত্রীটির মা বিদেশে চাকরীর সুবাধে তার আপন ফুফা একই গ্রামের ফজলুর রহমান ফজেল তাদের পবিারের সাথে সব সময় যোগাযোগ রাখত। যোগাযোগের সুযোগে লম্পট ফজেল পঞ্চম শ্রেনীর ওই শিশুটিকে নিয়ে মটরসাইকেল যোগে বিভিন্ন স্থানে বেড়াতে যায়। বেড়ানোর নাম করে গত শুক্রবার (৩ সেপ্টেম্বর) সকালে ওই শিশুটিকে তার বাড়ীতে নিয়ে যায়। বাড়ীতে ওই সময় লোকজন না থাকায় লম্পট ফজেল শিশুটিকে জোর পূর্বক ধর্ষন করে।

বিষয়টি কাউকে না জানানোর জন্য তাকে বার বার ভয়ভীতি দেখায়। শিশুটি অসুস্থ হয়ে পড়লে ঘটনাটি তার প্রতিবেশিকে জানায়। শিশুটির প্রতিবেশিরা বিষয়টি তার বাবাকে জানালে রাতেই বাবা ধর্ষক ফজেলকে আসামী করে ধর্ষনের অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার পর পরই পুলিশ অভিযান চালিয়ে ধর্ষক ফজেলকে তার বাড়ী থেকে আটক করে। অসুস্থ শিশুটিকে পুলিশ উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপপাতালে ভর্তি করেছে।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে বাগমারা থানার ওসি মোস্তাক আহম্মেদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ধর্ষক ফজেলকে আটক করা হয়েছে। আহত শিশুটিকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। শিশুটির ন্যায় বিচারের সকল ব্যবস্থা হাতে নেয়া হয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :