বাগমারায় মরা গরুর মাংস বিক্রির দায়ে কসাইয়ের কারাদন্ড

বাগমারায় মরা গরুর মাংস বিক্রির দায়ে কসাইয়ের কারাদন্ড

রাজশাহী

মোস্তাফিজুর রহমান জীবন রাজশাহীঃ

রাজশাহীর বাগমারায় মরা গরুর মাংস বিক্রির দায়ে একজন কসাইয়ের এক মাসের কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে। দন্ড পাওয়া ওই কসাইয়ের নাম খোরশেদ আলম। তার বাড়ি উপজেলার কহিতপাড়া গ্রামে।

উপজেলা প্রশাসন ও স্থানীয় ব্যক্তিরা জানান, গত শুক্রবার উপজেলার কহিতপাড়া গ্রামের খোরশেদ আলম নামের একজন কসাই রুগ্ন একটি গরু কিনে বাঘাবাড়ি বাজারে নিয়ে আনেন। রাতের কোনো এক সময়ে গরুটি মারা যায়।

পরে রাতে মরা গরুটি জবাই করেন। বিষয়টি বাজারের পাহারাদার লোকমান আলী মকলেছুর রহমান টের পেয়ে তাঁদের বাধা প্রদান ও মাংস বিক্রির করতে বারণ করেন। গতকাল শনিবার সকালে কসাই বাজারে মাংস বিক্রি শুরু করেন।

বাজারের পাহারাদারেরা বিষয়টি বাজার কমিটির সদস্যদের জানান। তাঁরা ঘটনাস্থলে ছুটে এসে তাঁদের মাংস বিক্রিতে বাধা দেন। এক পর্যায়ে তাঁদের জিজ্ঞাসাবাদে কসাই মরা গরু জবাই করে মাংস বিক্রির কথা স্বীকার করেন।

স্থানীয় লোকজনেরা কসাই খোরশেদকে আটকে রেখে উপজেলা প্রশাসনকে বিষয়টি মুঠোফোনে জানান। দুপুরের পরে উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মাহমুদুল হাসান ঘটনাস্থলে পৌঁছে এলাকার লোকজনের কাছ থেকে ঘটনা সর্ম্পকে অবহিত হওয়ার পর কসাই খোরশেদ আলমকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন।

তিনি মরা গরু জবাই ও মাংস বিক্রির অভিযোগ স্বীকার করেন। পরে ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক কসাইকে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দেন।

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :