বাগমারায় করোনা ওয়ার্ডে নারীর মৃত্যু, চিকিৎসাধীন স্বামী

বাগমারায় করোনা ওয়ার্ডে নারীর মৃত্যু, চিকিৎসাধীন স্বামী

রাজশাহী

বাগমারা প্রতিনিধিঃ

রাজশাহীর বাগমারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে এক নারীর (৫২) মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে তিনি করোনা ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। ওই নারীর স্বামীও উপসর্গ নিয়ে একই ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন।

হাসপাতাল ও রোগীর স্বজনদের সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় উপজেলার একটি গ্রামের স্বামী-স্ত্রী উভয়ে জ্বর ও শ্বাসকষ্টের সমস্যা নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন। তাঁদের করোনাভাইরাসের উপসর্গ থাকায় সন্দেহভাজন রোগী হিসেবে করোনা ওয়ার্ডে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সাড়ে ১০টার দিকে তীব্র শ্বাসকষ্টে ওই নারী মারা যান। তবে তাঁর স্বামী সুস্থ রয়েছেন।

কয়েক দিন ধরে তাঁরা জ্বর ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। বাড়িতে চিকিৎসা নেওয়ার পরও অবস্থার উন্নতি হয়নি। এর মধ্যে গতকাল স্ত্রীর অবস্থার অবনতি হলে উভয়কেই হাসপাতালে নেওয়া হয়। তবে স্বামীর শারীরিক অবস্থা ভালো বলে চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা গোলাম রাব্বানী বলেন, গত বছর বাড়ি বাড়ি গিয়ে চিকিৎসা দেওয়ার কারণে রোগীদের হাসপাতালে আসতে হয়নি।

গোলাম রাব্বানী আরও বলেন, এ বছর করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে রোগীরা হাসপাতালেই ছুটছেন। তাঁদের জন্য আলাদা ওয়ার্ড তৈরি করা হয়েছে। এটি করোনা ওয়ার্ড হিসেবে পরিচিত। সন্দেহভাজন রোগীদের আলাদা ওয়ার্ডে (করোনা) রেখে চিকিৎসা দেওয়া হয়। নমুনা পরীক্ষার পর পজিটিভ হলে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইসোলেশন বা বাড়িতে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হয়। মারা যাওয়া নারী সন্দেহভাজন হিসেবে করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি হয়েছিলেন। তাঁর মধ্যে করোনাভাইরাসের উপসর্গ ছিল।

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :