বাগমারায় নয় বছরের শিশুকে ধর্ষণ,ধর্ষক গ্রেফতার

বাগমারায় নয় বছরের শিশুকে ধর্ষণ,ধর্ষক গ্রেফতার

রাজশাহী

বাগমারা প্রতিনিধিঃ

বাগমারায় নয় বছরের এক শিশুকে ধর্ষনের অভিযোগে পুলিশ আব্দুর রাজ্জাক (৩২) নামে এক ধর্ষককে গ্রেফতার করেছে এবং ধর্ষনের শিকার শিশুকে প্রথমে বাগমারা মেডিকেলে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে রাজশাহীর ওয়ার স্টপ ক্রাইসিস সেন্টার(ওসিসি) তে পাঠানো হয়েছে।

এ্ই ঘটনায় ধর্ষনের শিকার শিশুর পিতা বাদী হয়ে ধর্ষক আব্দুর রাজ্জাককে আসামী করে বাগমারা থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, যোগিপাড়া ইউনিয়নের নখোপাড়া গ্রামের ধর্ষনের শিকার ওই শিশুটি বুধাবর বেলা সাড়ে দশটার দিকে একই গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের(৩২) বাড়ির পাশে অন্যান্য শিশুদের সাথে খেলছিল। আব্দুর রাজ্জাক আবু তাহেরের পুত্র এবং গ্রামে সে বখাটে লম্পট হিসাবে পরিচিত। খেলার সময় শিশুটির পানির পিপাসা পেলে সে আব্দুর রাজ্জাকের বাড়িতে পানি পান করার জন্য প্রবেশ করে।
এ সময় আব্দুর রাজ্জাক বাড়িতে অন্য কেউ না থাকার সুযোগে শিশুটিকে ফুসলিয়ে শয়ন ঘরে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে।

এ সময় শিশুটির যৌনাঙ্গ দিয়ে রক্তপাত শুরু হলে শিশুটি চিৎকার ও কান্নাকাটি শুরু করে। ধর্ষনের শিকার শিশুটির চিৎকার ও কান্নাকাটি শুনতে পেয়ে তার খেলার সঙ্গী অন্যান্য শিশুরা আব্দুর রাজ্জাকের বাড়িতে প্রবেশ করলে আব্দুর রাজ্জাক বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। পরে প্রতিবেশি ও ধর্ষনের শিকার শিশুর পিতামাতা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে আহত শিশুকে উদ্ধার করে বাগমারা মেডিকেলে নিয়ে যায়। ধর্ষণের এই ঘটনাটি বাগমারা থানায় জানানো হলে দুপুরের মধ্যেই পুলিশ অভিযান চালিয়ে ধর্ষক আব্দুর রাজ্জাককে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

ধর্ষনের এই ঘটনাটি ও ধর্ষক আব্দুর রাজ্জাকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বাগমারা থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মোস্তাক আহম্মেদ জানান, খবর পেয়ে আমরা সাথে সাথে ধর্ষককে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছি। ধর্ষণের শিকার শিশুটির অবস্থা নাজুক।

তাকে বাগমারা মেডিকেলে জরুরী চিকিৎসা সেবা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেলের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টার(ওসিসি) তে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনায় শিশুর পিতা বাদী হয়ে একটি ষর্ধন মামলা দায়ের করেছেন।

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :