রাজশাহীতে করােনা সাটিফিকেট জিম্মিকারী ও প্রতারণা চক্রের ০৩ সদস্য গ্রেফতার

রাজশাহীতে করােনা সাটিফিকেট জিম্মিকারী ও প্রতারণা চক্রের ০৩ সদস্য গ্রেফতার

রাজশাহী

নিজেস্ব প্রতিবেদকঃ

রাজশাহী মহানগর এলাকাকে সকল প্রকার অপরাধ, প্রতারনা, মাদক ও চোরাচালান নির্মূলকরার লক্ষ্যে রাজশাহী মহানগর পুলিশের সম্মানিত পুলিশ কমিশনার জনাব মােঃ আবু কালাম সিদ্দিকমহােদয়ের নির্দেশে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।গােয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে রাজশাহী মহানগর গােয়েন্দা পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার, জনাবমােঃ আরেফিন জুয়েল এর সার্বিক তত্ত্বাবধায়নে, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার(ডিবি) জনাব মােঃআব্দুল্লাহ আল মাসুদ এর নেতৃত্বে গােয়েন্দা পুলিশের একটি বিশেষ টিম পুলিশ পরিদর্শক(নিরস্ত্র) জনাবমােঃ আশিক ইকবাল সঙ্গীয় অফিসার ও ফোর্সসহ মহানগরীর বােয়ালিয়া থানা এলাকার হেতেমখাওয়াবদা কলাবাগান হতে করােনা সার্টিফিকেট জিম্মিকারী ও প্রতারণা চক্রের ৩ সদস্যকে আটককরেন।

আটককৃতরা হলাে মূলহােতা ১। মােঃ তারেক আহসান(৪১) এবং তার দুই সহযােগী ১। মােঃরফিকুল ইসলাম(৪২), ২। মােসাঃ সামসুন্নাহার শিখা(৩৮) এরা দু’জন স্বামী-স্ত্রী। এই ঘটনায় আরােদুইজন পলাতক আছে। মূলতঃ সিভিল সার্জন অফিসকে কেন্দ্র করে এই প্রতারণামূলক চক্রটি গড়েউঠে। আটকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, যেসকল বিদেশগামী করােনা টেস্টের জন্য স্যাম্পলদিয়েছেন তাদের অনেক সময় ৪৮/৭২ ঘন্টার মধ্যে টেস্টের রিপাের্ট এর প্রয়ােজন হয়।

উক্ত চক্রতাদের মােবাইল ফোনের মাধ্যমে জানায় যে, আপনার করােনা রিপাের্ট পজেটিভ এসেছে। আপনিআমাদের সঙ্গে যােগাযােগ করেন। তবে আপনার করােনা রিপাের্ট নেগেটিভ করার ব্যবস্থা করা হবে।অতঃপর প্রতারক চক্রের সদস্যরা ভূক্তভােগীদের ডেকে ৩০০০-১৫০০০ টাকার বিনিময়ে করােনানেগেটিভ রিপাের্ট সরবরাহ করত। অথচ সার্টিফিকেট সত্যিকার অর্থে নেগেটিভই ছিল। বিদেশগামীসহঅন্যান্যরা দ্রুত সময়ে করােনা রিপাের্ট পাওয়ার জন্য উক্ত টাকা ঐ চক্রের হাতে তুলে দিত। এসংক্রান্তে বােয়ালিয়া মডেল থানায় একটি নিয়মিত মামলা রুজু প্রক্রিয়াধীন।

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :