রাজশাহীতে নকল ঔষধ ও ঔষধ তৈরির সরঞ্জামসহ ২ জন আটক

রাজশাহীতে নকল ঔষধ ও ঔষধ তৈরির সরঞ্জামসহ ২ জন আটক

রাজশাহী

লিয়াকত রাজশাহীঃ

রাজশাহীতে নকল ঔষধ তৈরি কারখানার অনুসন্ধান পেয়েছে রাজশাহী মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।
গতকাল শুক্রবার ২৩ এপ্রিল ২০২১ রাত ০৯.০০ টায় রাজশাহী মহানগরীর চন্দ্রিমা থানার ভদ্রা আবাসিক এলাকায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ডিবি পুলিশ অভিযান চালিয়ে নকল ঔষধ তৈরির কারখানার সন্ধান পেয়েছে।

এসময় কারখানা মালিক মোঃ শফিকুল ইসলাম আনিস (৪৬) ও মোঃ রবিউল ইসলাম (৩২)-কে আটক করে এবং কারখানা তল্লাশী করে ৭০,৯৭,৩০০ টাকা মূল্যের বিপুল পরিমাণ নকল ঔষধ ও ঔষধ তৈরির কাঁচামাল ও যৌন বর্ধক ট্যাবলেটসহ ঔষধ তৈরীর মেশিন জব্দ করে।

পুলিশ কমিশনার মোঃ আবু কালাম সিদ্দিক আরএমপি ডিবি কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে জানান, পুলিশের কাছে গোপন সংবাদ ছিলো রাজশাহীতে নকল ঔষধ তৈরি করে দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করা হচ্ছে। এই বিষয়ে তারা তথ্যের সত্যতা ও নকল ঔষধের কারখানার অনুসন্ধান করছিলো। তাছাড়াও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ ভুক্তোভোগীদের মাধ্যমে জানতে পারে বাজারে নকল ঔষধ পাওয়া যাচ্ছে। ঔষধ খেয়ে রোগীরা সুস্থ্য না হয়ে বরং আরো অসুস্থ্য হচ্ছে।

নকল ঔষধ তৈরির বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পরে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের সম্মানিত পুলিশ কমিশনার মোঃ আবু কালাম সিদ্দিক নির্দেশনায় উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিবি) মোঃ আরেফিন জুয়েল এর তত্বাবধানে সহকারী পুলিশ কমিশনার (ডিবি) মোঃ রাকিবুল ইসলাম এর নেতৃত্বে পুলিশ পরিদর্শক জনাব মোঃ রেজাউল হাসান ও তার টিম রাজশাহী মহানগরীর চন্দ্রিমা থানার ভদ্রা আবাসিক এলাকায় নকল ঔষধ তৈরির কারখানায় অভিযান চালিয়ে  নকল ঔষধ, ঔষধ তৈরির সরঞ্জাম ও কাঁচামাল উদ্ধার করে ।

এসময় কারখানা মালিক আসামী মোঃ শফিকুল ইসলাম আনিস (৪৬) ও মোঃ রবিউল ইসলাম (৩২)-কে আটক করে।
প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে কারখানা মালিক জানায়,  তারা দীর্ঘদিন যাবৎ ঢাকা হতে কাঁচামাল এনে বিভিন্ন নামিদামি কোম্পানির বহুল ব্যবহৃত নকল ঔষধ তৈরি করতো। পরবর্তীতে তার তৈরি নকল ঔষধ  বিভিন্ন ফার্মেসীতে পৌঁছিয়ে দিতো এবং দেশের বিভিন্ন স্থানেও সরবরাহ করতো বলে জনায়। গ্রেফতারকৃত আসামীদ্বয়ের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। 

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :