রাজশাহীতে প্রেমের কারনে গলায় গলায় ফাঁস দিয়ে এক কিশোরীর আত্মহত্যা

রাজশাহীতে প্রেমের কারনে গলায় গলায় ফাঁস দিয়ে এক কিশোরীর আত্মহত্যা

রাজশাহী

লিয়াকত রাজশাহী:

রাজশাহী পুঠিয়ার বেলপুকুর ইউনিয়নের চক জামিরা গ্রামের নিশি নামে ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। নিশি শরিফুল ইসলামের মেয়ে। সে জামিরা জামেয়া ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসার ষষ্ঠ শ্রেণিতে লেখাপড়া করত। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ৩টার দিকে চক জামিরার তার নানার বাড়ি থেকে গলায় ফঁাস দেওয়া অবস্থায় তাকে উদ্ধার করা হয়।

মেয়ের মামা ও মা সুত্রে জানা যায়, কিসমত জামিরা মাদ্রাসা সংলগ্ন সাবর আলীর ছেলে খাইরুলের সাথে নিশির প্রায় ৬ মাস ধরে প্রেমের সম্পর্ক ছিলো। খাইরুল প্রায় পথে ঘাটে দেখা করে কথা বলতো। এমনকি বিভিন্ন ধরনের খাবার ও মোবাইল ফোন কিনেও দিয়েছিলো বলে জানান তারা। 

এরপর স্বার্থ ফুরিয়ে গেলে খাইরুল সম্পর্ক ছিন্ন করার চেষ্টা করে। এ অবস্থায় মঙ্গলবার তার বান্ধবী রূপসীর মাধ্যমে ডিসির মোড় নামক স্থানে তাদের শেষ কথা হয় বলে জানান তারা। কথা শেষে নিশি দ্রুত বাসায় গিয়ে কাউকে কিছু না বলে দরজা লাগিয়ে গলায় ফঁাস দেয়। তার মা চিৎকার শুনে দরজা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে রশি কেটে তাকে উদ্ধার করে দ্রুত রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

গতকাল বুধবার ময়না তদন্ত শেষে নিশির লাশ পরিবারের নিকট হস্তান্তর করে মেডিকেল কর্তৃপক্ষ। এ বিষয়ে জানতে চাইলে বেলপুকুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আলমগীর হোসেন বলেন, এঘটনায় ইউডি মামলা হয়েছে। এই ঘঠনায় কেউ জড়িত থাকলে তার বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :