রাজশাহীতে শিক্ষক-কর্মচারীদের বাবা-মাকে দেয়া হলো সংবর্ধনা

রাজশাহীতে শিক্ষক-কর্মচারীদের বাবা-মাকে দেয়া হলো সংবর্ধনা

রাজশাহী

নিজস্ব প্রতিবেদক:

রাজশাহীর শহীদ মামুন মাহমুদ স্কুল এন্ড কলেজে বাবা-মাকে নিয়ে পালিত হলো এক ব্যতিক্রমী দিন। এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত শিক্ষক কর্মচারীদের বাবা-মাকে বুধবার সংবর্ধনা দেয়া হয়। সংবর্ধনা নিতে একে একে হাজির হন 36 জন বাবা-মা।

আর তাদের নিয়েই দিনটি নানা আয়োজনে পালন করেন ওই কলেজের শিক্ষক কর্মচারীরা। বাবা-মাকে নিয়ে কলেজ চত্বরে উৎসবে মেতে ওঠেন শিক্ষক-কর্মচারীরা।এ উপলক্ষে রাতে কলেজ অধ্যক্ষ গোলাম মাওলা ফেসবুকে একটি পোস্ট করেন, তা সিলকসিটিনিউজ পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো-

আমার বাবা মৃত্যুবরণ করেছেন ১৯৯৬ খ্রিস্টাব্দে এবং মা মৃত্যুবরণ করেছেন ২০০৪ খ্রিস্টাব্দে। মাঝে মাঝে পৃথিবীতে মনে হয় আমি এতিম এবং বড় একা। চিন্তাটা তখনই এল যদি এমনটি করা যায়। আমার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ৭০ জন শিক্ষক-কর্মচারী রয়েছেন তাদের যে সমস্ত বাবা-মা বেঁচে আছেন তাদের নিয়ে একটা দিন কাটালে কেমন হয়? শুরু হলো বাস্তবায়নের প্রক্রিয়া।

সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত খরচে আমার শিক্ষক-কর্মচারীদের সহযোগিতায় আজকে পালন করলাম মা বাবা দিবস ২০২১।হলরুম এবং শ্রেণিকক্ষ কে মনের মাধুরী মিশিয়ে যতটুকু পারা গেল সজ্জিত করা হলো। সকাল ১১ টায় প্রোগ্রাম শুরু হলো। ৩৬ জন মা-বাবারা আসলেন, বসলেন, নাস্তা করলেন। মূল গেট থেকে অধ্যক্ষের রুম পর্যন্ত প্রত্যেক বাবা-মাকে ফুল ছিটিয়ে, সংগীতের মূর্ছনায় বরণ করে নেয়া হলো।

এরপর বেলুন ফেস্টুন উড়িয়ে হল রুমে নিয়ে আসা হল। পবিত্র গ্রন্থ থেকে পাঠ করা হলো। বিভিন্ন পর্যায়ের কথোপকথন, স্মৃতিরোমন্থন , আজকের দিনের মূল্যায়ন, ছেলেমেয়েদের ক্ষমাপ্রার্থনা, বাবা-মায়ের মাফ করে দেয়া সহ দোয়া করা হলো। প্রত্যেক বাবা-মাকে শাল পরানো, ক্রেষ্ট দেয়া , ফুল দেয়া ইত্যাদি ইত্যাদি কার্যক্রম চলছিল। হ্যাঁ, অশ্রু সিক্ত ও আবেগ আপ্লুত ছিল সকলেই।

আবেগ হাসি-কান্না দোয়া একটি অন্যরকম আবহ তৈরি হয়েছিল যা এ জীবনে অপূর্ণ ছিল। মা-বাবারা কথা দিলেন, আমাদের সকলের জন্য তারা সব সময়ই দোয়া করবেন। এমন আবেগঘন, ভালোলাগার, ভালোবাসার, কাছে টানার অনুষ্ঠানটি একটি অন্যরকম প্রাপ্তি এনে দিল।

অবশেষে দুপুরের মধ্যাহ্ন ভোজ ও দোয়ার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানটির পরিসমাপ্তি ঘটলো। যদি সম্ভব হয় তাহলে প্রতিষ্ঠান প্রধানগণ নিজ নিজ অবস্থান থেকে এমন আয়োজন আপনারাও করতে পারেন। নিজের সহ অন্য সহকর্মীদের একদিনের জন্য হলেও সংবর্ধনার নামে একত্রীকরণের ব্যাবস্থা করতে পারেন। সবাই ভালো থাকবেন।

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :