রাজশাহী কেশবপুরে পুলিশ ফাঁড়ির নতুন ভবন উদ্বোধন ও শীতবস্ত্র বিতরণ

রাজশাহী কেশবপুরে পুলিশ ফাঁড়ির নতুন ভবন উদ্বোধন ও শীতবস্ত্র বিতরণ

রাজশাহী

রাজশাহী প্রতিনিধিঃ

রাজশাহী মহানরগীর কাশিয়াডাঙ্গা থানার কেশবপুর পুলিশ ফাঁড়ির নতুন ভবন উদ্বোধন করলেন রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের সম্মানিত পুলিশ কমিশনার জনাব মোঃ আবু কালাম সিদ্দিক মহোদয়। পরবর্তীতে তিনি কাশিয়াডাঙ্গা কলেজ মাঠে ৫০০ জন দুস্থ, প্রতিবন্ধী ও অসহায় শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেন।

১৬ জানুয়ারি রবিবার বেলা সাড়ে ১২ টায় রাজশাহী মহানগরীর পূর্ব রায়পাড়ায় ফাঁড়ির নতুন ভবন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। আরএমপি’র সম্মানিত পুলিশ কমিশনার মোঃ আবু কালাম সিদ্দিক উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে কেশবপুর পুলিশ ফাঁড়ির নতুন ভবন উদ্বোধন করেন।

কাশিয়াডাঙ্গা থানা এলাকার আওতাধীন গুড়িপাড়া, রায়পাড়া, মুন্সিপাড়া, হড়গ্রাম কাঁচা বাজার, হড়গ্রাম স্বর্ণকার পাড়া, সায়েরগাছা, বসরী, চালনা সাঁকো, পোড়াপাড়া, গোলজারবাগ এলাকাসমূহ নিয়ে কেশবপুর পুলিশ ফাঁড়ির কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে। কেশবপুর পুলিশ ফাঁড়ি উক্ত এলাকাসমূহে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার্থে বিশেষ ভূমিকা রাখছে। কিন্তু ফাঁড়ি ভবনটি রাজপাড়া থানা এলাকায় হওয়ায় কেশবপুর পুলিশ ফাঁড়ি এলাকায় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় সমস্যার সৃষ্টি হয়।

সমস্যা নিরসনে পুলিশ কমিশনার কেশবপুর এলাকায় ফাঁড়ির ভবন স্থানান্তরের নির্দেশ দেন। নির্দেশনার পূর্ব রায়পাড়া এলাকায় কেশবপুর পুলিশ ফাঁড়ির নতুন ভবন স্থানান্তরিত হয়। কেশবপুর পুলিশ ফাঁড়ির আওতাধীন এলাকায় বসবাসরত জনগণের সংখ্যা আনুমানিক ৩৫,০০০ হাজার। কেশবপুর ফাঁড়িটি বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে পদ্মা নদীর তীর ঘেষ্টিত। চোরাচালান, মাদকদব্য, ইভটিজিং, ছিনতাই সহ বিভিন্ন অপরাধ নিবারণে কেশবপুর পুলিশ ফাঁড়ির ভূমিকা অপরিসীম।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পুলিশ কমিশনার বলেন, রাজশাহী মহানগরীকে নিরাপদ নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে বিভিন্ন কার্যক্রম গ্রহণ করেছি। যার সুফল নগরবাসী ভোগ করছে। কেশবপুর পুলিশ ফাঁড়ির নতুন ভবন উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে পুলিশি সেবা জনগণের দোড়গোড়ায় পৌঁছে যাবে এবং বৃদ্ধি পাবে। তিনি স্থানীয় জনগণকে অপরাধ দমনে পুলিশকে সহায়তা করার জন্য অনুরোধ করেন। বর্তমানে ভবনটি কাশিয়াডাঙ্গা থানা এলাকায় অবস্থিত হওয়ায় কেশবপুর পুলিশ ফাঁড়ির এলাকা সমূহে পুলিশি কার্যক্রমের জন্য যথেষ্ট সহায়ক হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

ফাঁড়ি ভবন উদ্বোধন শেষে পুলিশ কমিশনার মোঃ আবু কালাম সিদ্দিক কাশিয়াডাঙ্গা ক্রাইম বিভাগের আয়োজনে কাশিয়াডাঙ্গা কলেজ মাঠে কাশিয়াডাঙ্গা, কর্ণহার এবং দামকুড়া থানা এলাকার ৫০০ জন দুস্থ, প্রতিবন্ধী ও অসহায় শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়।

আইন শৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের সামাজিক ও মানবিক কর্মকান্ডে আরএমপি পুলিশ সবসময় সাধারণ মানুষের পাশে রয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় আজকে দুস্থ, প্রতিবন্ধী ও অসহায়দের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হলো।
এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম এন্ড অপারেশন) মোঃ মজিদ আলী বিপিএম, উপ-পুলিশ কমিশনার (সদর) মোঃ রশীদুল হাসান পিপিএম, উপ-পুলিশ কমিশনার (বোয়ালিয়া) মোঃ সাজিদ হোসেন, উপ-পুলিশ কমিশনার (কাশিয়াডাঙ্গা বিভাগ), মোঃ মনিরুল ইসলাম, আরএমপি’র উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ, বেগম নার্গিস আরা, ভারপ্রাপ্ত প্রিন্সিপাল, কাশিয়াডাঙ্গা কলেজ, মোঃ রজব আলী, প্যানেল মেয়র-২ এবং ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর (রা.সি.ক), মোঃ নাহিদ আক্তার নাহান, সাধারণ সম্পাদক, কাশিয়াডাঙ্গা থানা কমিউনিটি পুলিশিং সহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও সাংবাদিকবৃন্দ।

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :