রাজশাহী তানোরে সন্ত্রাসীদের দাপটে ২০০ গৃহহীন পরিবারের মানবেতর জীবনযাপন

রাজশাহী তানোরে সন্ত্রাসীদের দাপটে ২০০ গৃহহীন পরিবারের মানবেতর জীবনযাপন

রাজশাহী

লিয়াকত রাজশাহীঃ

রাজশাহীর তানোর উপজেলায় সন্ত্রাসী দিয়ে অবৈধ উচ্ছেদ, বাড়িঘর ভাংচুর ও জমি দখলের ঘটনায় চরম মানবেতর জীবনযাপন করছে গৃহহীন ২০০ পরিবার। এদের মধ্যে উপজাতি পরিবার রয়েছে অন্তত ৫০ টি। দফায় দফায় সন্ত্রাসী হামলায় আহত হওয়ার পর বর্তমানে আতঙ্কগ্রস্থ হয়ে আমাবাগান ও মসজিদে রাত্রিযাপন করছেন তারা।

এ ঘটনায় জমি দখলকারী ও হামলাকারীদের বিরুদ্ধে প্রশাসন কোনো ব্যবস্থা না নিয়ে উল্টো উপজাতিদের ওপরই নিযার্তন চালিয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে।এসব ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে গত ৯ ফেব্রুয়ারি রাজশাহী জেলা প্রশাসককে লিখিতভাবে অভিযোগ দেয় ভুক্তভোগী পরিবারগুলো।

তবে একের পর এক হুমকি-ধামকি আসায় গতকাল শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১টায় তানোরের তালন্দ সমাসপুরে বিক্ষোভ-মানববন্ধনের আয়োজন করেন স্থানীয়রা। এতে ২০০ পরিবারের সদস্যরা ছাড়াও আশপাশের এলাকার কয়েকশো মানুষ অংশ নেন। নিরাপত্তা নিশ্চিত পূর্বক গৃহ নিমার্ন করে জমি ফিরিয়ে দেয়ার দাবিতে অনুষ্ঠিত এ বিক্ষোভ-মানববন্ধনে সংহতি প্রকাশ করে উত্তরাঞ্চলের সর্ববৃহৎ অরাজনৈতিক স্বেচ্ছাসেবী সামাজিক সংগঠন জননেতা আতা্ও রহমান স্মৃতি পরিষদ।

এসময় রাজশাহী প্রেসক্লাব ও জননেতা আতাউর রহমান স্মৃতি পরিষদের সভাপতি সাইদুর রহমান, রাজশাহী কোর্টের আইনজীবী আব্দুল আহাদ মন্ডল, স্থানীয় স্কুল শিক্ষক মাদার বখশ্, বিশিষ্ট সমাজসেবক আব্দুল গাফফার, এরাজ মন্ডল, নজরুল, নাসিরসহ আরো অনেকে বক্তব্য রাখেন।মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, প্রায় একমাস আগে ভূমিদস্যু ও সন্ত্রাসী বাহিনীর মদদদাতা আব্দুল মান্নান ও তার জামাতা সৈয়দ আহসান আলী অবৈধভাবে তানোরের তালন্দ সমাসপুরে সরকারী খাস জমিতে বসবাসরত ২০০ পরিবারের ওপর হামলা চালায় এবং বাড়িঘর উচ্ছেদ করে প্রায় ৩৫ বিঘা জমি দখলে নিয়ে নেয়।

হামলায় আহত হন অনেকে। প্রতিবাদ করায় প্রাণনাশের হুমকি দেয়া হয় স্থানীদের। উচ্ছেদ হওয়া ২০০ পরিবারের মধ্যে ৬০-৭০ টির উপজাতি পরিবার রয়েছে।স্থানীয়রা বলেন, সেখানে তারা দীর্ঘদিন যাবৎ সেখানে বসবাস করে আসছিলেন। হঠাৎ করে জাল কাগজ দেখিয়ে উচ্ছেদ করা হয়েছে তাদের।

এ ঘটনায় প্রশাসনের সহায়তা চাইলে উপজেলা অফিস থেকে তাদের ঘরবাড়ি নিমার্ণ করার ব্যপারে উদ্যোগ না নিয়ে উল্টো গৃহহীনÑঅসহায়দের গ্রেপ্তারের হুমকি দেয়া হয়। অথচ মুজিববর্ষে গৃহহীন সকল পরিবারকে ঘর নিমার্ণের ঘোষনা দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং ইতোমধ্যে অসহায় সেসব পরিবারকে বাড়ি নিমার্ণ করে দেয়া হয়েছে।

তারা জানান, এছাড়া সন্ত্রাসী বাহিনীর সশস্ত্র মহড়ার দিন উপজেলা নিবার্হী কর্মকতার্ ঘটনাস্থলে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে অস্ত্রধারী ৫৩ জনকে ৫৩ হাজার টাকা জরিমানা করে ছেড়ে দেন। গৃহহীনদের নিরাপত্তার বিষয়েও নেই কোনো উদ্যোগ। আতঙ্কগ্রস্থ হয়ে তারা একমাস থেকে আমবাগান ও মসজিদে রাত্রিযাপন করছেন।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত আব্দুল মান্নান ও তার জামাতা সৈয়দ আহসান আলীর বক্তব্য পাওয়া যায়নি।এ ব্যাপারে তানোর থানার ওসি রাকিবুল ইসলাম বলেন, আতঙ্কগ্রস্থ হয়ে আমাবাগান ও মসজিদে রাত্রিযাপনের বিষয়টি একবারেই মিথ্যা। ছোট ছোট ঘর করে অন্যের মালিকানাধীন জমি দখলের চেষ্টা করছিল কয়েকটি পরিবার।

তবে জমির প্রকৃত মালিক তার জমি দখলে নিয়েছেন। জানতে চাইলে তানোর উপজেলা নিবার্হী কর্মকতার্ সুশান্ত কুমার মাহাতো বলেন, ভ্রাম্যমাণ আদালতের অািভযানে চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ঘটনাস্থলে আসা কয়েকজনকে জরিমানা করা হয়। তবে বিষয়টি তদন্তাধীন রয়েছে। উভয়পক্ষকে নিয়ে বসে বিষয়টি সমাধান করা হবে।

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :