রাজশাহী পবা উপজেলায় এমপির নাম ভাঙ্গিয়ে আলুর জমিতে পুকুর খনন

রাজশাহী পবা উপজেলায় এমপির নাম ভাঙ্গিয়ে আলুর জমিতে পুকুর খনন

রাজশাহী

লিয়াকত রাজশাহী :

রাজশাহী পবা উপজেলার বরগাছি ইউনিয়নের দাদপুর বিলে গ্রামবাসীর বাধা উপেক্ষা করে, গ্রামীণ সড়ক ও কালভার্টের মুখ বাধাগ্রস্ত করে এমপির নাম ভাঙ্গিয়ে ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে রাত দিন চলছে অবৈধ পুকুর খননের কাজ। সরজমিনে গিয়ে এর সত্যতা মিলেছে, দেখা যাচ্ছে জমিতে এখনো আলু চাষ অব্যাহত রেখেছে কৃষক। এরই মধ্যে কিভাবে ভেকু মেশিন দিয়ে মাটি কেটে পুকুরের পার বান্ধা হচ্ছে এটা কারও বোধগম্য নয়।

এ বিষয়ে পুকুর খননকারী মশিউর হাজী ও শহিদুলের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে পবা-মোহনপুর দুই আসনের এমপি আয়েন উদ্দিন ও পবা থানাকে ম্যানেজ করে পুকুর কাটছি পারলে আপনি রিপোর্ট করেন। স্থানীয় এমপি ও থানাকে টাকা দেওয়ার বিষয়টি মশিউর হাজি নির্দ্বিধায় স্বীকার করেছেন যা আমার কাছে মোবাইল ফোনে কল রেকর্ড এ সংরক্ষিত আছে। 

এ বিষয়ে এলাকাবাসীর কাছে জানতে চাইলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি বলেন, কয়েকদিন আগে গ্রামের দুইশত কৃষক এ পুকুর বন্ধের পক্ষে হাজির হলে তখন তারা কাজ বন্ধ করতে বাধ্য হয় কিন্তু তারপরে কি ভাবো আবার সেই স্থানে এই পুকুর খনন হচ্ছে সেটা তারা কিছুতেই বুঝতে পারছে না। আবার কেউ কেউ ভয়ে মুখ খুলতে চাচ্ছেনা।
দাদপুর গ্রামের আব্দুর রশিদ বলেন, এই পুকুরের পাশে আমার কয়েক বিঘা জমি আছে। 

যা এই পুকুরের কারণে আগামীতে জলাবদ্ধতার কারণে আমি আর ফসল করতে পারব না। কিন্তু আমার জমি কম অন্যদের জমে বেশি থাকায় ভয়ে প্রতিবাদ করতে সাহস পাচ্ছিনা আপনাদের মাধ্যমে আমি সহযোগিতা কামনা করছি যেন এ তিন ফসলি জমিতে পুকুর খননের কাজ বন্ধ হয়। 

অনুসন্ধানে বেড়িয়ে আসে, জমির মালিকদের বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে মোটা অংকের টাকার প্রলোভন দেখিয়ে সাথে বিভিন্ন কূটবুদ্ধি দিয়ে অসহায় কৃষকদের বিপদে ফেলেন বলে অভিযোগ উঠেছে মসিউর হাজি ও শহিদুলের বিরুদ্ধে। 

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :