রাজশাহী বড়বনগ্রামে বাগান দখলকে কেন্দ্র করে হামলা ভাঙ্গচুরের অভিযোগ

রাজশাহী বড়বনগ্রামে বাগান দখলকে কেন্দ্র করে হামলা ভাঙ্গচুরের অভিযোগ ( ভিডিও)

রাজশাহী

লিয়াকত রাজশাহী:

রাজশাহী মহানগরীর বড়বনগ্রাম খলিল সরকারের মোড় সেখপাড়া এলাকায় একটি বচাগান দখলকে কেন্দ্র করে গতকাল সোমবার দুপুর সারে ১২টার দিকে ভাঙ্গচুর ও বাগান ধংসের অভিযোগ পাওয়া গেছে। সেইসাথে ককটেল বিস্ফোরণ করে আতঙ্ক সৃষ্টি করে জমিতে থাকা গাছ ও পাশের বাড়িতে হামলা চালিয়ে বাড়িঘর ও একটি মোটরসাইকেল ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে।

সন্ত্রাসী কর্মকান্ড থামাতে সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। ঘটনা সুত্রে জানা যায়, এই এলাকার ভাদু মন্ডলের ওয়ারিশগণ তাদের সম্পত্তি ২০ বছর ধরে ভোগ দখল করে আসছেন। কিন্তু ঐ সম্পত্তি নগরীর কলাবাগান এলাকার রিয়াজ সরদার ও রাজ্জাক সরদার নিজেদের বলে বলে দাবি করে আসছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে জানা যায়, নগরীর কলাবাগান এলাকার রিয়াজ সরদারের ছেলে রাসেল সরদার, রাহাত সরদার ও রাজ্জাক সরদারের ছেলে জনি সরদারসহ ৪০-৫০ জনের অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী নিয়ে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে জমি দখলের চেষ্টা করে। এলাকাবাসী বাধা দিলে তাদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় তারা জমিতে থাকা প্রায় দুইশত পেঁপে গাছ কেটে ফেলে এবং ভাদু মন্ডলের বসতবাড়িতে দেশীয় অস্ত্র রামদা দিয়ে কুপিয়ে বাড়িঘর ভাঙচুর করতে থাকে।

শামসুলের স্ত্রী সেলিনা বেগম বাধা দিলে তাকেও কুপিয়ে জখম করে এবং একটি মোটর সাইকেল সন্ত্রাসীরা ভাংচুর করেছে বলে জানান। এসময়ে মৃত গনি মিয়ার ছেলে হোসেন এগিয়ে আসলে তাকেও রামদা দিয়ে মাথায় আঘাত করে ও হাতের কব্জিতে মারাত্মক জখম করে। জমশেদ মণ্ডলের ছেলে লিটন হোসেনের উপর ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে তাকেও মারাত্মক জখম করে।

পরে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সন্ত্রাসীরা দ্রুত পালিয়ে যায় বরে জানান ভুক্তোভোগিরা। ঘটনাস্থলে উপস্থিত পুলিশ অফিসারের নিকট ঘটনা সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, খবর পেয়ে তারা দ্রুত ঘটনাস্থলে এসেছেন। উভয় পক্ষকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে। সেইসাথে আহতদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছেন বলে জানান তিনি। বর্তমান অবসন্থা শান্ত হলেও এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :