রাণীশংকৈলে ইউএনও পরিচয়ে টাকা আদায়ের চেষ্টা বীর মুক্তিযোদ্ধার কাছ থেকে দুই প্রতারকের

রাণীশংকৈলে ইউএনও পরিচয়ে টাকা আদায়ের চেষ্টা বীর মুক্তিযোদ্ধার কাছ থেকে দুই প্রতারকের

জাতীয়

মাহাবুব আলম , রাণীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধিঃ

ঠাকুরগাঁয়ের রাণীশংকৈলে এক বীর মুক্তিযোদ্ধার সাথে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে  ভুয়া ইউএনও’ পরিচয়ে টাকা আদায়ের চেষ্টা দুই প্রতারকের। ভক্তভোগী মৃত রাম শরণ ভক্তের ছেলে বীর মুক্তিযোদ্ধা রতন কুমার ভক্ত। 

মোবাইল ফোনের মাধ্যমে প্রতারকের খপ্পরে পরে হেনস্ত হয়ে অবশেষে বুঝতে পারেন তাকে নিয়ে ফাঁদ পাতা হয়েছে অর্থ আত্মসাতের জন্য।উপজেলার এ বীর মুক্তিযোদ্ধা জানান , অচেনা দুটি মোবাইল নাম্বার  থেকে ফোন আসে আমার কাছে। একজন ইউএনও অপরজন ব্যাংক কর্মকর্তা। নানান কথার অবসান ঘটিয়ে মোবাইলের নগদ মাধ্যমে দাবী করেন ৪২ হাজার ২০০ টাকা। এ টাকা মোবাইলে পরিশোধ করলেই পেয়ে যাবেন বেশ মোটা অংকের টাকা।

তিনি বলেন, মঙ্গলবার দুপরে বসে বাড়িতে টিভি দেখছিলেন এ বীর মুক্তিযোদ্ধা। ইউএনও পরিচয়ে ফোন দেন এক প্রতারক। বলেন মুজিবর্ষ উপলক্ষে আপনার জন্য একটি অনুদান এসেছে ২ লক্ষ ৭৫ হাজার টাকা। শুরুটা এভাবে হলেও প্রতারণার জাল পেতে সোনালী ব্যাংকের জিএম পরিচয়ে মোবাইল ফোনে আরেক প্রতারক একই কথা বলে মুক্তিযোদ্ধার সাথে। টাকা পাইয়ে দিতে বিনিময়ে টাকা দিতে হবে মোবাইলে নগদ মাধ্যমে। 

যদিও  দু’জন কর্মকর্তার ফোন পেয়ে বিচলিত হয়ে উঠেন তিনি, তবুও মনে সন্দেহ বাসা বাঁধে। বুঝতে পারেন অপর প্রান্তে থাকা দু ব্যক্তিই প্রতারক। কোনমতে এ মোবাইল ফাঁদ থেকে বেচে যান ঐ মুক্তিযোদ্ধা। হাফ ছেড়ে ছুটে আসেন রাণীশংকৈল নির্বাহী কর্মকর্তার অফিসে। 

প্রতারকের বিষয়টি ইউএনও কে জানান বীর মুক্তিযোদ্ধা  রতন কুমার ভক্ত ইউএনও সোহেল সুলতান  জুলকার নাইন কবির জানান, বিষয়টি জানার সাথে সাথে থানা পুলিশকে জানানো হয়েছে। প্রতারকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে অবহিত করেছি।।

প্রতারক দুজনের মোবাইল নাম্বার দেয়া হলো-ভূয়া  ইউএনও (০১৮৭৭৬২০০৯৭) ভূয়া ব্যাংক কর্মকর্তা( ০১৮৮৮২৬৭৫৬৬)

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :