স্বীকৃতির বিনিময়ে ইসরাইলকে স্বীকৃতি

স্বীকৃতির বিনিময়ে ইসরাইলকে স্বীকৃতি

আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেক্সঃ

কসোভোকে স্বীকৃতির বিনিময়ে ইসরাইলের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক গড়তে যাচ্ছে কসোভো। আগামী (১ ফেব্রুয়ারি) সোমবার ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠানে ইহুদি রাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্কে স্বাভাবিক করছে দেশটি। (২৯ জানুয়ারি) শুক্রবার এক বিবৃতিতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

বিবৃতে উল্লেখ করা হয়েছে, ওই অনুষ্ঠানে কসোভোর পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেলিজা হারাদিনাজ ও ইসরাইলি পররাষ্ট্রমন্ত্রী গ্যাব্রিয়েল আশকানাজী কূটনৈতিক সম্পর্ক স্বাভাবিকরণে চুক্তি স্বাক্ষর করবেন।

কসোভোর পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, কসোভো ইসরাইলের স্বীকৃতি পাওয়া অন্যতম একটি অর্জন। আমাদের সব সময়কার বন্ধু যুক্তরাষ্ট্রের জন্যই এটা সম্ভব হয়েছে। সহযোগিতার জন্য যুক্তরাষ্ট্রকেও ধন্যবাদ জানাই। এদিকে দু’দেশের নতুন সম্পর্ককে ইতিবাচক এবং স্মরণীয় ঘটনা উল্লেখ করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

এর আগে বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প কসোভো ও সার্বিয়ার শীর্ষ নেতার সঙ্গে ২০২০ সালের সেপ্টেম্বরে হোয়াইট হাউসে সাক্ষাৎ করেন। দু’দেশের মধ্যে সম্পর্কে উন্নয়নে একটি চুক্তিতে পৌঁছায়।

কসোভোও ইসরাইলের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্কে উন্নয়নে আগ্রহ প্রকাশ করে। আর সার্বিয়া তেল আবিব থাকা তাদের দূতাবাস জেরুজালেমে স্থানান্তরে ঘোষণা দিয়েছে।

এর আগে ট্রাম্পের মধ্যস্থতায় ইসরাইলের সঙ্গে কূটনেতিক সম্পর্ক গড়ে তুলেছে মুসলিম রাষ্ট্র সংযুক্ত আর-আমিরাত, বাহরাইন, সুদান। 

বলকান অঞ্চলে গত শতকের নব্বইয়ের দশকে রক্তক্ষয়ী সংঘাত এবং ইয়ুগোস্লাভিয়া থেকে বিখণ্ডায়নের পর, কসোভো ১৯৯৯ সালে জাতিসংঘের সুরক্ষা এবং প্রশাসনিক ব্যবস্থার আওতায় আসে। ২০০৮ সালে কসোভোতে বসবাসরত সংখ্যাগরিষ্ঠ আলবেনীয়রা একটি স্বাধীন, স্বনির্ভর প্রজাতন্ত্র গঠনের ঘোষণা প্রদান করে। জার্মানিসহ বিশ্বের অনেক দেশ রাষ্ট্র হিসেবে কসোভোকে স্বীকৃতি প্রদান। দাঁড়ায় কসোভো প্রজাতন্ত্র।

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :