হরতাল সফল করতে বিভিন্ন স্থানে হেফাজত কর্মীদের অবস্থান

হরতাল সফল করতে বিভিন্ন স্থানে হেফাজত কর্মীদের অবস্থান

জাতীয়

রাজশাহী টাইমস ডেক্সঃ

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিবিরোধী বিক্ষোভ, সমাবেশ ও সংঘর্ষে নিহতের ঘটনার হেফাজতে ইসলামের ডাকে সারাদেশে সকাল-সন্ধ্যা হরতালে সড়কে যানবাহন চলাচল কম। বিভিন্নস্থানে অবস্থান নিয়েছে হেফাজত কর্মীরা।

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের ডাকা সকাল-সন্ধ্যা হরতালে যান চলাচল কম। রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে সীমিত পরিসরে বাস-মিনিবাস চলছে। 

হেফাজতে ইসলামের ডাকা সকাল সন্ধ্যা হরতালে যে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা মোকাবিলায় তৎপর রয়েছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। সকাল থেকেই রাজধানীর পল্টন, বায়তুল মোকাররম, দৈনিক বাংলার মোড় ও মতিঝিল এলাকাসহ গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় সতর্ক অবস্থানে রয়েছে পুলিশ।তবে হরতালের সমর্থনে দু-একটি জায়গায় ঝটিকা মিছিল করেছে হেফাজতের নেতাকর্মীরা। হরতালের নামে কেউ কোনো নাশকতা ও সহিংসতা চালাতে না পারে, সে জন্য মাঠে রয়েছে আওয়ামী লীগ। 

এদিকে, হরতালের সমর্থনে সকাল থেকেই ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ মিছিল করে হেফাজত কর্মীরা। এসময় তারা সিলেট ও কুমিল্লা মহাসড়কের অন্তত ৪০টি স্থানে বৈদ্যুতিক খুঁটি ফেলে ও টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে ব্যারিকেড সৃষ্টি করে।  

হরতালের সমর্থনে সকালে নরসিংদীর ভেলানগরে অবস্থান নেয় হেফাজত সমর্থকরা। সড়কে যান চলাচল বন্ধ থাকায় ভোগান্তিতে পড়েন যাত্রীরা।

অন্যদিকে, নোয়াখালী মাইজদী, চৌমোহনী ও বেগমগঞ্জে মিছিল শেষে সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে এবং গাছের গুঁড়ি ফেলে যান চলাচলে বাধা সৃষ্টি করে হরতাল সমর্থকরা। এছাড়া, সকাল থেকে সিলেট নগরীর কয়েকটি স্থানে পিকেটিং করতে দেখা যায় হেফাজত কর্মীদের। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সড়ক থেকে সরিয়ে দেয়া হয় তাদের।

রাজশাহীর নওদাপাড়া ট্রাক টার্মিনালে দাঁড়িয়ে থাকা দুটি বিআরটিসি বাসে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা। আতঙ্ক তৈরিতে হেফাজত কর্মীরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এছাড়া, বন্দরনগরী চট্টগ্রামে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। রাস্তায় দেখা যায়নি হরতাল সমর্থকদের। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে পুলিশ-রেবের পাশাপাশি মাঠে রয়েছে বিজিবি সদস্যরা।

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :