২৮ তারিখের পর শিথিল হচ্ছে কঠোর বিধিনিষেধ

২৮ তারিখের পর শিথিল হচ্ছে কঠোর বিধিনিষেধ

জাতীয়

রাজশাহী টাইমস ডেক্সঃ

কোভিড-১৯ বিস্তার রোধে সার্বিক কার্যাবলী ও চলাচলে বিধি-নিষেধ ২৮ এপ্রিলের পর কিছুটা শিথিল হতে পারে বলে জানিয়েছেন জনপ্রাশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

তবে, বিধিনিষেধ শিথিল হলেও স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে মেনে চলতে হবে এবং নো মাস্ক নো সার্ভিস নিশ্চিত করা হবে বলেও জানিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী। এ বিষয়ে ২৮ এপ্রিলের মধ্যে সিদ্ধান্ত জানানো হবে বলে জানান তিনি। শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) বিকেলে গণমাধ্যমকে এসব তথ্য জানানো হয়।

তবে, করোনা সংক্রমণরোধে চলমান কঠোর বিধিনিষেধ ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত কার্যকর থাকবে বলেও জানানো হয়েছে।

এর আগে, শুক্রবার দুপুরে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে জারি করা প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়েছে, সারা দেশে ২৫শে এপ্রিল থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দোকানপাট এবং শপিংমল খোলা থাকবে।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়তে থাকায় সরকার ৫ এপ্রিল থেকে দেশব্যাপী বিধিনিষেধ আরোপ করলে এক পর্যায়ে ব্যবসায়ীরা সরকারের সিদ্ধান্ত পূনর্বিবেচনার জন্য মাঠে নামে। আন্দোলনের মুখে সকাল ৯টা থেকে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত দোকানপাট ও শপিংমল খোলা রাখার ঘোষণা দেয়া হয়। পবর্তীতে করোনায় মৃতের সংখ্যা রেকর্ড পরিমাণ বৃদ্ধি পাওয়ায় ১৪ এপ্রিল থেকে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করলে আবারও বন্ধ হয়ে যায় দোকানপাট ও  শপিংমল।

এদিকে, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে ৫ই এপ্রিল থেকে প্রথম দফায় সাত দিনের বিধিনিষেধ আরোপ করে সরকার। তবে, তার ধারাবাহিকতা চলে ১৩ই এপ্রিল পর্যন্ত। এরপর ১৪ই এপ্রিল থেকে দ্বিতীয় দফয় কঠোর বিধিনিষেধ দেয়া হয়, যা চলে ২১শে এপ্রিল পর্যন্ত। কিন্তু, করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়ায় ২২শে এপ্রিল থেকে আরো এক সপ্তাহ কঠোর বিধিনিষেধের মেয়াদ বাড়ানো হয়। ২৮শে এপ্রিল মধ্যরাত পর্যন্ত দেশব্যাপী কঠোর বিধিনিষেধ বৃদ্ধি করে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

মন্তব্য করুনঃ

আপনার মন্তব্য করুন :